একটি নোয়াখালী ভাষার কবিতা

আহমেদ সাবের
১৪ মার্চ,২০১২

সালেহ মাহমুদ 'এর কবিতায় “হাইঞ্জার” শব্দটির ব্যাবহার দেখে মনে পড়ল, আঞ্চলিক ভাষার শব্দ ব্যাবহারে আমারও কয়েকটা কবিতা আছে। তারই একটি ............ । শব্দার্থ এখন দিলাম না, পরে ব্লগে দিয়ে দেব। দেখি, কতজন কবিতাটা বুঝতে পারেন।

 

বিপদ

আহমেদ সাবের

 

একটি নোয়াখালী ভাষার কবিতা

 

মিয়া বাই-র মাইজ্জা হোলা গেছেগোই গোল্লায়

ঘরে হান্দাই হেতেরে কাম্বাইছে বল্লায়

কাম্বড় খাই বান্দর হোলা গাজ্জোরে চিল্লায়

হেতের মা আইঞ্ছে হানি হিতইল্যা ঠিল্লায়

হেরের বু-জান কানে ধরি টানি হেতেরে আনি

বদনা দি ঠেঙ্গের উ-রে ঢালে ঠান্ডা হানি।

 

ছোড মাইয়্যা বইছে খাইতো কোয়ালে তার ঝাঁডা

হাইজ্জিন্যার আন্দারে হেতির গলায় বিন্দে কাঁডা

কাঁডা ত আর যা তা নয়, কই মাছের কাঁডা

কাঁডার ঘাইয়ে অইলো মাইয়্যার জীবনটাই খাডা

শুলের চোডে কান্দি মাইয়্যা চাইদর বরাইছে

মাইয়্যার মা কান্দন দে-ই বউৎ ডরাইছে।

 

বেক্কে মিলি চিল্লাই কয়, দইল্যে বিলাইর বইর

যাইবো কাঁডা, খুঞ্জ বিলাই, খুঞ্জ নীচে চইর

চিল্লানীর চোঁডে বিলাই হাল দি উডে গাছে

হেই রঙ্গে কুটনা বু-ই তিরিং বিরিং নাচে।

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
খোন্দকার শাহিদুল হক বেশ হাসি পেলাম। ভাল লাগল। অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল। ভাল থাকবেন।
আহমেদ সাবের ধন্যবাদ খোন্দকার শাহিদুল হক। আপনার জন্যও অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল। শুভ কামনা রইল।
শাহ আকরাম রিয়াদ সাবের ভাই, আপনার এই প্রয়াসটুকু খুবই ভাল লাগল। নোয়াখালীর আঞ্ঝলিক ভাষাকে এভাবে প্রকাশ করার জন্য ধন্যবাদ। আরও এই রকমের লেখা চাই।
আহমেদ সাবের ধন্যবাদ শাহ আকরাম রিয়াদ, লেখাটা আপনার ভাল লেগেছে জেনে খুশী হলাম। এই রকমের আরও লেখার চেষ্টা করব।
সালেহ মাহমুদ সাবের ভাই, আঁরে আন্নে কিয়া মনে করছেন, আঁই বুঝি বুঝতাম ন ! আঁই গাজীপুইরা ত কিয়া অইছে, আঁই বেকগুণ বুইঝছি। আন্নেরে আল্লায় বালা করুক।
আহমেদ সাবের বাউরে, আন্নের লে-য়া বহুত দুরস্ত অইছে। সালেহ বাই, আন্নের কাছেত্তুন আঁর দেইকছি নোয়াখালী ভাষা শিখন লাইগবো।
সাঈদ সবের ভাই অনেক কষ্ট করে পরলাম অনেক কিছুই প্রথমে বুঝে উঠতে পারি নাই প্রথমে ২/৩ বার পড়ার পর কিছু কিছু বুঝতে পারছি তারপর এক সহকর্মীকে ডেকে নিয়ে পুরাটা বুঝে নিয়েছি ... অনেক মঝা পাইছি ....
আহমেদ সাবের সাঈদ সুমন ভাই, কষ্ট করে কবিতাটা পড়বার এবং বুঝবার জন্য ধন্যবাদ।
Azaha Sultan হা হা হা......মিয়া বাই, আঁই হকলডি বুইজ্জ্যা হেলাইচি.......কি মজা....
আহমেদ সাবের আযহা বাই, আন্নে অইলেন আঁর হাশের জিলার মানুষ। আন্নে ন বুইজলে আর ক-নে বুইজবো?
বশির আহমেদ পুরো কবিতাটি বুঝতে কোন কষ্ট হয়নি । খুঞ্জ বিলাই খুঞ্জ নীচে চইর প্রথম একটু খটকা লাগলেও পরে বুঝতে পেরেছি । চৈৌকির নীচে খোজার কথা বলা হয়েছে ।
আহমেদ সাবের ধন্যবাদ বশির আহমেদ, কবিতাটা পড়বার জন্যে।
আহমাদ মুকুল ওরো....কাম সাইচ্চে! কবিতাখান ফড়ি চান্দি গরম অই গ্যাছে। টক্কা মারি বাথরুম থন মাতায় হানি ঢালি আইলাম।
আহমেদ সাবের ভাইজান, চান্দি গরম অইলে - গুনীনের বান দি, বাড়ী ঘর বান্ধি, মান্দার তলে কান্দি, হুরি মাছ রান্ধি, হুরান ছুরি শান দি, চলেন আতরকান্দি। আতরকান্দি গেলে, গুতুম হাগের বিলে, খেরের চিনের তলে, কালা হিমড়ার দলে, চান্দির অষুদ মিলে।
আহমাদ মুকুল হা হা হা.................হিমড়া মানে পিপড়া না?
আহমেদ সাবের হিমড়া মানে পিপড়া। উত্তর সঠিক হয়েছে।
Amena Akter ছড়া টা ভালো লেগেছে। পছন্দ হয়েছে।
Lutful Bari Panna হাইজ্জিন্যা ছাড়া সব শব্দ বুঝেছি। হেভী মজা পাইলাম। বিশেষ করে চিল্লানির ভয়ে বিড়ালের লাফ দিয়ে গাছে ওঠা তো সুপার।
Lutful Bari Panna এটা কি হ্যারিকেন নাকি?
আহমেদ সাবের না পান্না, হাইজ্জিন্যা মানে সন্ধ্যা।
Lutful Bari Panna আচ্ছা এটাও সাঁঝ শব্দটা থেকে এসেছে। বোঝা উচিৎ ছিল।

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

অক্টোবর ২০২১ সংখ্যার বিজয়ী কবি ও লেখকদের অভিনন্দন!i