কয়েকটি বৃষ্টি কাব্য

১.
মেয়েটি বৃষ্টি হতে চেয়েছিল

ছেলেটি মেঘ
দুজনের মনে ছিল
দূরন্ত আবেগ
অবশেষে মেয়েটির চোখে
ছেলেটি হলো জল
সে জলে ভেসে গেল
স্বপ্নের কাজল//

২.
তুমি এসো গো বন্ধু এসো
মেঘ বৃষ্টির দিনে

আমাকে বাঁধিও তোমার
চোখের জলের ঋণে

তুমি এসে ভুলিয়ে দিও
বিরহ ব্যথার শোক

চোখের জল আর বৃষ্টির জলে
কিছু কথা হোক//

৩.
মেঘের নীচে দাঁড়াই যখন

বৃষ্টি ভেজার ছলে

আমার কষ্ট সকল

ধুয়ে যায় শ্রাবণ বৃষ্টির জলে

চোখের কোণে থাকে জমে

গোপন অভিমান

বুকের ভিতর বাজে শুধু

চৈত্র দিনের গান//

৪.
কয়টি শ্রাবণ কাঁদলে

কষ্ট গুলো সব জল হয়

কয়টি ফাগুন এলে

দুঃখ জমে শতদল হয়

কষ্টের রাত কতো দীর্ঘ হলে

ভালোবাসা কাছে আসে আরো

কেউ কি তা বলতে পারো//

৫.
হয়তো আমি তোমার ছিলাম
হয়তো কখনো ছিলাম না

তবু তোমার জীবন থেকে

সহসা বিদায় নিলাম না

এখনো যখন বৃষ্টি দিনে

উদাস হয় তোমার মন

আমি তোমার ভাবনায় এসে

করি জ্বালাতন//



বন্ধুরা, এমন আরো বৃষ্টি কবিতা পড়তে ইচ্ছে করলে ভিজিট করতে পারেন আমার ব্যক্তিগত ব্লগ মেঘ-বৃষ্টি-ভালোবাসা’য়। কথা দিচ্ছি আপনার মন ভিজিয়ে দেব কবিতার বৃষ্টিতে। :-)