একটা প্রহর ছিলো চন্দ্রোদয়ের।

তারপর কেটে গেছে কত মধুচন্দ্রিমা রোজ

কত সঙ্গীতরাগ হেমন্তের শুকনো পাতার খসখসে গায়

কত দৈনিক গল্প বাতিল কন্ডেন্সমিল্কের ছবির কৌটায়।

 

উঠোন জুড়ে যত প্রশ্ন ছিলো আগে...

তোমার প্রশ্নের সেই মোটা দাগের শ্যাওলা ঋণে

কোন নায়কের পায়ের ছাপ অনুবাদ হয়নি আজো।

তোমার ছড়ানো ছেঁটানো সাজানো ফুলের রাস্তায়

কোনদিন সাহস হয়নি ভালোবাসার বৃষ্টি ঝরে পড়ার,

তাই পাশের বাড়ির জানলায় ঝমঝম শব্দ হয়।

 

ঐ একটাই চন্দ্রোদয়ের প্রহর ছিলো

প্রতিদিন দু’বেলা পৌষের জোয়ার ছিলো...

তারপর কেটে গেছে কত কত মধুচন্দ্রিমা

কত বিলম্ব প্রচ্ছদে মোলায়েম সকাল।