দু'হাতে স্বপ্ন সরাতেই দেখি, একরাশ

বাস্তব এসে হুমড়ি খাচ্ছে সামনে

পিছু হটি যত পেয়ে বসে ঠিক। সেকরার

ঠুকঠাক সার, কিছুতে ভাঙার নাম নেই

 

দুচোখে জমেছে নিবিড় ধুলোর আস্তর

ঝাপসা দেখছি, কুয়াশা জমছে চিন্তায়

মগজের কোষে ধুসর মেঘেরা- ক্লান্ত

ঘুম নেই চোখে, রাত পেরোচ্ছে তিনটা

 

ঘুম নেই চোখে, রাতের পাড়ায় টুংটাং

শব্দ উঠছে, শব্দ শুনছি শংকার

জ্বলছে নিভছে ছাই চাপা আগুনটা

বুক পোড়াচ্ছে, সভ্যতা পুড়ে কংকাল

 

দুহাতে কষ্ট সরাতেই দেখি, অমনি

তুমি পাশে নেই, তুমিও ভাসছ শূন্যে

মেঘ ঝরে গেলে মন্দ্র বাতাসে দম নিই

অনুভূতিহীন, নির্ঘুম; চোখে ঘুম নেই

 

কাঁচের শার্শি রোদ মেখে মেখে শুষ্ক

জাফরির ফাঁকে আকাশী হাওয়ার উত্তাপ

দুহাতে শব্দ সরাতেই সব ঠুনকো-

ভাঙছে, চুরছে নৈশব্দের ঘুরপাক

 

ঘুম নেই চোখে- স্বপ্ন পুড়ছে নগ্ন

ঘুম নেই চোখে, ঘূর্ণাবর্তে ঘুরছি

দুহাতে নিদাঘ সরাতেই, জলমগ্ন

সাইবেরিয়ার হিমেল আগুনে পুড়ছি