শামস বিশ্বাসের লেখাটা পড়ে অনেক পুরোনো কাঁচা বয়সের লেখা একটা কবিতা নিয়ে এলাম। আমার সে সময়ে যে আশংকা হয়েছিল পরে তা অক্ষরে অক্ষরে মিলে গেছে।

 

অমঙ্গল

 

এখন আর পূর্ব পশ্চিমের

স্নায়ু টানটান উত্তেজনা নেই;

গ্লাসনস্ট আর পেরেস্ত্রোইকার

ভার সইতে না সইতেই-

 

ঠুনকো কাঁচের মত টুকরো হল

সমাজতন্ত্রের তীর্থভূমী।

নিরাপদ পৃথিবীতে খুলে দিলাম বাহুডোর;

প্রিয়তমা আসতে পারো তুমি।

 

প্যালেস্টাইন খুঁজে পেয়েছে নীড়;

মহামিলন ঘটিয়েছে জার্মানী;

আমরাই বা নীড়হীন কেন-

এসো তোমার প্রেমের কাছে হার মানি।

 

মাথার উপরে ছায়া আঙ্কল শ্যাম;

ভয় নেই, দৈত্য-দানো আসবে না আর।

নদীর স্রোতের মত প্রেমের তুফান-

ভেঙেচুরে করে দিক সব একাকার।

 

শুধু সাবধান! সাবধান!! কক্ষণো

খেপিওনা তাকে; শ্যাম আঙ্কল-

রেগে গেলে ভীষণ বিপদ হবে;

ঘটে যাবে মহা অমঙ্গল।