গল্প-কবিতায় প্রকাশিত আমার “''তমসা বৃত্ত'' গল্পে কবিতাটার অংশ বিশেষ প্রকাশের পর পুরো কবিতা প্রকাশের জন্য কিছু পাঠক অনুরোধ করেছেন। সেই অনুরোধের প্রতি সম্মান দেখিয়ে কবিতাটা এখানে দিলাম। এ কবিতাটা থেকে গান হয়েছে। গানটি গেয়েছেন এবং সুর করেছেন বিশিষ্ট সুরকার আতিক হেলাল। লিঙ্ক - http://bangla-sydney.com/view_item.asp?url=Shukh-Nogor-Song

 

 

 

সুখ নগরে বসত আমার, সখী নদীর কুলে

উথাল হাওয়া লাগলো এসে আমার আউলা চুলে

ভরলো আকাশ জগত জোড়া শীশার বরন মেঘে

গুরু গুরু ডাকলো রে ঢাক, আসলো হাওয়া বেগে

ভাংলো আমার সাধের বসত, মিশলো মাটির ধুলে।

 

ছিলাম আমি শূন্যে ঘুড়ি সুখ নগরে নাটাই

প্রভু আমার কাটলো সুতা, করলো রে ছাটাই

এখন আমি ঘুইরা বেড়াই কুটা যেমন জলে

বাধলো না রে কেউ আমারে শিকল পরার ছলে।

মাঝি ছাড়া নৌকায় আমি ডুইবা আছি ভুলে।

 

জগৎ জোড়া আছে রে মন কত রঙের মানুষ

দিন বিধাতা রাখছে বানাই কাগজের ফানুস

শূন্যে থাইকা টানে সুতা, নাচে পুতুল নাচে

প্রভু তারে জান না দিলে কেমনে পুতুল বাঁচে

তিনি যদি বাঁচান আমায় কে দিব গো শূলে?

 

প্রভু থাকেন আরশি ঘরে, কেমনে কাছে যাই?

বাহির থেইকা দেখি তারে, কেমনে কাছে পাই?

হারাইলাম পথ গহীন বনে চতুর্দিকে নিশা

আশা আছে মনে মনে পাইয়া পথের দিশা

সুখ নগরে ফিরলে তিনি কোলে নিবেন তুলে।