সবাই আশা করি "প্রিয়ার চাহনি" সংখ্যার লেখা জমা দিয়ে ফ্রি হয়ে গেছেন। জাতিতে জাতিতে হানাহানির এই বিপন্ন বিশ্বে বিশ্ব মানবতার প্রতি উৎসর্গ একটা সামান্য নিবেদন এখানে দিলাম। কবিতাটা থেকে গান হয়েছে। গেয়েছেন রঞ্জিত দাশ আর সুর করেছেন আতিক হেলাল। লিঙ্ক http://www.youtube.com/watch?v=57dfuNXfsZ8

 

আমি পৃথিবীর ছেলে

 

আহমেদ সাবের

 

জন্ম আমার লোহিত সাগরে, প্রভাতে ছিলাম এপোলোর ঘরে,

দুপুরের রোদে হেটে চলি আমি মরুভূমি সাহারায়।

আমি পৃথিবীর ছেলে পৃথিবীতে চলি, পৃথিবীর ধুলো গায়।

 

বিকেলের রোদে আইফেল হয়ে, রংধনু বেয়ে পৌঁছি হিমালয়ে

সন্ধ্যায় ভিড়ি গঙ্গার তীরে, ধীরে ধীরে মৃদু পায়।

রাত্রি নিশীথে যাই ব্যাবিলনে, আসর বসাই তারাদের সনে,

পিরামিড মুলে ধুসর বালুতে, নাইলের মোহনায়।

 

কখনোবা উঠি চীনের প্রাচীরে, গ্র্যান্ড ক্যানিয়নে যাই ঘুরে ফিরে

মাঝ খানে থামি সুন্দর বনে, শ্যামলের বন ছায়

জলের প্রপাতে ভাসায়ে নিজেরে, বন্দর হাটে, জনতার ভিড়ে

অবশেষে থামি পাখীদের নীড়ে, সাগরের কিনারায়।

 

তীর্থে তীর্থে চলেছি ভ্রমণে, বোধি বৃক্ষটি কভু পড়ে মনে,

ভ্যাটিকান ঘুরে আরবেও যাই, যদি মোর মন চায়।

একই পিতার সন্তান সবে, এত রেষারেষি রয় কেন তবে;

ভাইয়ের রক্ত ভাই কেন নেয়, স্রষ্টার অছিলায়?

 

মানব দুঃখে দুঃখ আমার, তুলে নিতে চাই সকলের ভার।

যদি মন চায় চিঠি লিখো মোরে পৃথিবীর ঠিকানায়।

আমি পৃথিবীর ছেলে পৃথিবীতে চলি, পৃথিবীর ধুলো গায়।