এক

আমার বুকে অজস্র ধূলিকণায়

জমেছে অনেক জল

 আমি কাদঁবো না

আমি ভালোবাসায় তোমাদের ভেজাবো চিরকাল।

 

দুই

আমি অন্ধ, আমার ভালোবাস নয়

 জলে-স্থলে কিংবা নীল আকাশে

 কোথায় তুমি আর তোমার সুগন্ধ

আমি ঠিকই চিনে নেবো।

 ফিরে আসো, তোমায় আমি বায়োস্কোপ দেখাবো

দেখাবো ভালোবাসার যাত্রাপালা

যা পুষে রেখেছি সোনার বাক্সে এতদিন।

 

তিন

সেই স্বপ্নে মঙ্গলে যাবো, বানাবো ঘর

 ঘুরবো কোন দিকভ্রান্ত ছায়াপথের উপর

 একদিন অপরাধী শনির বুকে চালাব কুড়াল

 আরপর ভালোবাসার খেয়াযানে দেব উড়াল।

 

চার

এবার তবে চলো

 শক্ত করে আমার হাত ধরো হাতে

 তোমায় নিয়ে আজ মরা গঙ্গায় শুদ্ধ হবো

চলো আজ প্রতিটি রাস্তায় মিছিল করবো

 স্লোগানে স্লোগানে নৃত্য হবে আজ বৃষ্টির

 চলো আজ সারারাত হাটবো তোমায় নিয়ে

 যে দিকে দু'চোখ যায় ল্যাম্পোষ্টের ঘোলা আলোয়।

 

পাঁচ

তোমার সেই কান্নার ঢল

 আমার জমিনের পাথরে আর্তনাদ করে

 আমি নির্বাক, আমি স্তব্ধ হয়ে যাই।

 তবু আমি পথ সাজাই আবারো

 আমি অপেক্ষা করি, বাধিঁ বুক

 ভাবি আবার পরবে পায়ের চিহ্ণ আমার পথে।

 

ছয়

আমার ভালো লাগেনি কিছু

অজান্তেই বুক ভরে অনেক মেঘ জমেছিল

চাপা নিঃশ্বাসে বৈশাখী ঝড়,

আনাচে কানাচে কত ফিসফাস

ভয়ে আমার থমকে যায় বুক...

তুমি ভালো আছো তো?

 

 

সাত

আমাদের ভালোবাসার পথে চলো পথিক,

তোমায় কখনো করবো না পর...

 অনেক গল্প দেবো, ছন্দ দেবো,

দেবো সুর তোমার প্রতি গানের উপর।