‘বিদেশপ্রীতি’ বাদ দিতে হবে আমাদের

swapon
১৫ অক্টোবর,২০২১
‘স্বদেশপ্রেম’ বলে একটি কথা আছে যা আমরা ছোট বেলায় বই/পুস্তকে পড়েছি। কিন্তু এখন এই ‘স্বদেশপ্রেম’ আর নেই বললেই চলে । একেবারে তলানিতে পড়ে গেছে। তেলের বোতলের তলানিতে যেমন ‘খৈইল’ পড়ে থাকে অনেকটা সেই রকম অবস্থা। অন্যদিকে আমাদের মধ্যে ‘বিদেশপ্রীতি’ অনেকটাই বেড়ে গেছে। যাকে বলা যায় চরম আকার ধারণ করা আর কি ! কথায় কথায় বিদেশের জয় জয়কার। বিদেশে অমুক আছে, বিদেশে তমুক আছে, ইত্যাদি, ইত্যাদি। কেউ যদি একবার থাইল্যান্ড যেতে পারে তবে তার মধ্যে ‘স্বদেশপ্রীতি’ বাদ দিয়ে ‘বিদেশপ্রীতি’ জমতে থাকে। তারপর মালয়েশিয়া আর সিঙ্গাপুর যেতে পারলে বাংলাদেশকে আর কোন দেশই মনে করে না। কথায় কথায়, শয়নে স্বপনে তারা শুধু বিদেশ দেখে। স্বপ্নে দেখে বিদেশে আছে আর ঘুম ভাঙ্গলে দেখে দেশেই পড়ে আছে। ‘স্বদেশপ্রেম’ তলানিতে থাকায় আমাদের এই অবস্থা হয়েছে। দেশকে আমরা হৃদয় দিয়ে ভালোবাসি না। তাই আমরা কথায় কথায় বিদেশের কথা বলি, বিদেশের ভালো বলি। আমাদের দেশে তো অনেক কিছুই আছে। তা দেখার সময় ও অর্থ আমাদের হয় না। অথচ অনেক সময় নষ্ট করে, হাজার হাজার টাকা খরচ করে বিদেশ যেতে আমাদের একটুও বাঁধে না। বিদেশে যাওয়া ভালো। সেখান থেকে ধারণা এনে বাংলাদেশে প্রয়োগ করা আরো ভালো, কিন্তু বিদেশ বিদেশ করে অজ্ঞান হয়ে মাতৃভূমি বাংলাদেশকে ভুলে যাওয়া একেবারেই ভালো না। আমি হাতিরঝিলের পাশে থাকি। প্রতিদিন অফিসে আসতে যেতে এই হাতিরঝিল আমার নিত্য সঙ্গী। এর সৌন্দর্য্য দেখে আমি একেবারে মুগ্ধ, অভিভূত। হাতিরঝিল দিনে একরকম এবং সন্ধ্যা-রাতে আরেক রকম রূপ পরিগ্রহ করে। দিনের চেয়ে রাতে এর সৌন্দর্য্য অনেক বাড়ে। মিটি মিটি আলোর ঝলকানি, পানিতে চাঁদের হাসি আর ট্রলার চলার ফট ফট শব্দ মানুষের সারা দিনের ক্লান্তি একেবারে ভূলিয়ে দেয়। চক্রাকার বাসের দূষণ সবুজ গাছের সংস্পর্শে এসে একেবারে শক্তিহীন হয়ে যায়। যারা হাতিরঝিল দেখেন নি তাদের অনুরোধ করবো, আপনারা হাতিরঝিলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করে বিদেশপ্রীতি বাদ দিয়ে দেশপ্রীতি বাড়ান।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "উষ্ণতা”
কবিতার বিষয় "উষ্ণতা”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ ডিসেম্বর,২০২১

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

অক্টোবর ২০২২ সংখ্যার বিজয়ী কবি ও লেখকদের অভিনন্দন!i