সুরের সান্ত্রি যা বাজিয়ে মোহের ভায়োলিন
মেঘের নিচে নিরুদ্দেশে সূর্যমুখী দিন
আড়াল করে পথের দিশা পায়রা উড়ে যাক
সন্ধ্যা প্রদীপ দাও জালিয়ে সূর্য ছুটি পাক

এই ভূগোলে জড়িয়ে থাকার উশ্ন আবেদন
বৃক্ষ উদাস ডাহুক বুকে বাক্য গড়ার ক্ষণ
সুখের পরাগ এই অধরা শরীর চেরা স্রোতে
শব্দ শুধায় বৃত্তে হারায় চায় নিজেকে পেতে

দূরান্তরের দখিন হাওয়ায় শিকল ভাঙ্গা সুর
তৃষ্ণাবুকে নিরব দাহে জীবন সুরায় চুর
বিন্দু মানুষ ভু-গোলকের বৃত্তে ঘুরে মরা
উজান স্রোতে নিরুদ্দেশের গন্ধ খুজে ফেরা