কিশোর বেলায় শীতকালকে যেভাবে উপভোগ করতাম- কবিতাটি তার নস্টালজিক কথামালা।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৪ ফেব্রুয়ারী ১৯৮৫
গল্প/কবিতা: ১৩টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - শীত (জানুয়ারী ২০২০)

শীতের রাতে সে কিশোর বেলা
শীত

সংখ্যা

সাকিব জামাল

comment ৬  favorite ১  import_contacts ৪৩
হঠাৎ, হঠাৎ মনে পড়ে, স্মৃতিতে ভীষণ ভাসে
কিশোর বেলার সে আড্ডার সময়টুকু হাসে ।
যখন এমন শীতে হতো মধ্যরাত -
কি যে মজা ছিলো- ডানপিঠি বন্ধুদের উৎপাত !
সবে মিলে ধান কাঁটা মাঠে কুড়েঘর বানানোর পরে-
খেজুর রসের পায়েস রেধে খেতাম সেথা বসে আয়েশ করে ।
নানা গল্পে, হৈ হুল্লোরে করতাম নিশি যাপন,
ছিলাম সবাই পরানের পরান- কতোই আপনের আপন !
সকাল হলেই পড়ত চিৎকার, চেঁচামেচি হতো বেশ -
কার গাছের রস কে নিলো হায়- বলতো তারা, এ কোন দুষ্ট ছেলের দেশ !
আমরা ভীষণ লজ্জা পেতাম, লুকিয়ে কাটতো দিন এখানে-ওখানে,
চুপি চুপি বলতাম বয়োজেষ্ঠ্যদের - 'গাজীর গান' শুনাবো দল এনে ।
হেসে দিয়ে তারা বলতো সবাই- কবে আনবি দল, কবে ?
আমরা বলতাম- ধান দাও, চাল দাও- বিক্রি করে টাকা আনি তবে !
খুশি হয়ে মাততো তারা আমাদের সাথে- উৎসবে ভাসতো গ্রাম দেশ,
শীতের রাতের সে কিশোর বেলা আজ কোথায় হারালো, হলো নিরুদ্দেশ ?

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement