স্বাধীনতা যেমন হিমুর রয়ে থাকা রাত জেগে ঘুম ভেঙে দেখা-
খোলা দরোজা থেকে আসা সুরজ সকাল।
দুপুরের ক্লান্ত সরোবরে আলসে স্থির অপেক্ষার নাম স্বাধীনতা।
স্বাধীনতা মানে মুচকি হাসির প্রাণের প্রবনতা।
স্বাধীনতার ছন্দে বিবাদ বাধা নেই।
চোখের পরে চোখ যতদূর যায় তার নাম স্বাধীনতা।
স্বাধীনতা; উচ্ছ্বসিত বাবার কোলে-
সদ্য শিশুর মেলে থাকা চোখে স্ত্রীর কাংখিত উপহার।
স্বাধীনতা বিকেলের খোলা মাঠে শিশুদের দিব্যি হরদম ছোটাছুটি।
মনের বারতায় প্রেমিক চোখে নির্বাক তাকানো-
সমুদ্রের বিশালতা দেখা আর গর্জন শোনা প্রেমিকা বা স্ত্রীর হাত ছুঁয়ে।
স্বাধীনতা মানে মায়ের সাথে শিশুর প্রাকৃতিক মেলবন্ধন।
উৎসুক গাল টিপে দিয়ে বন্ধুর সাথে অভিমান।
স্বাধীনতা মানে বিজয়ের উদ্ভাস-
তোপধ্বনি একে একে ভোরের বাতাস কাঁপিয়ে।
স্বাধীনতা মানে গ্রামের প্রাণের মমতা গুছিয়ে একসময় শহরে উঠা দৃপ্ত তরুণ।
মনের বিলাস রাঙিয়ে হাতে তরুণীর কাঁচের চুড়ির শব্দ।
স্বাধীনতা মানে প্রিয়ার হাতে প্রথম চুম্বন।
স্বাধীনতা; সকালের মিষ্টি রোদের ঝাঁজে স্ত্রীর কোলে মাথা রেখে চোখে চোখ রাখা।
স্তব্ধ সময়কে উড়িয়ে দেয়ার নাম স্বাধীনতা।
স্বাধীনতা; বঙ্গবন্ধু বাস্তবে না থেকেও আদেশের স্রোতে বাঙ্গালীকে যুদ্ধে আহ্বানের নাম।
কি নেই স্বাধীনতা - এই শব্দে।
হাওরের পতপত বাতাসে যুবাদের উল্লাসের নামও স্বাধীনতা।
স্বাধীনতা; এক সুমহান শব্দ।
গভীর; একান্ত; উৎসুক নম্র মনের ঢেউ আর আবেগের কলতান-
সবকিছু মিলে এরই নাম তবে স্বাধীনতা।