মনের অন্ধত্ব ভুলে
হৃদয়ের দোর খুলে,
গ্রামের পথে আয় ছুটে
শহুরে রঙিন পথ ভুলে ।
গ্রামের নতুন হাওয়া
হৃদয়ে তোমার দেবে দোলা ,
মনটা হবে ভুবন ভোলা
পাবে যখন নতুন ছোঁয়া ।

শহর নিয়ে গর্ব কিসের ,
তোমার ঐ ভবন গড়া তাসের !
পড়বে যখন হঠাৎ করে
কান্না ঝড়বে দুচোখ ভরে ।
গ্রামকে যতই কর হেলা
এখানেই তোমার স্মৃতির মেলা ,
তোমার জন্য আস্ত রবি
আলো বিলায় সাজবধি ।

গ্রামের ছোঁট্ট নদীর ধারা
স্বপ্নেই যেন বসতকরা ,
মায়াপুরীর কোন সিংহাসনে
বসে আছো যেন সঙ্গোপনে ।
বিকেল বেলার মধুর হাওয়া
জীবনের এক পূর্ণ পাওয়া ,
জীবন যেন ধন্য আজি
এই মাটিতেই জন্মি –বাঁচি ।

গ্রামকে যারা করল হেলা
ধিক তাহাদের সারাবেলা ,
সবুজ বনের মৃদুল হাওয়া
জুরাতে পারেনি যার হৃদয় জ্বালা ।
ধিক তাহাদের ,শত ধিক তারে
অভিশাপ দিলাম তোরে ,
পল্লী মায়ের বুক খালি করে
বন্ধনা করিস কারে ?

এখনো সময় আছে, এসো তুমি ছুটে
মনের অন্ধত্ব ভুলে, হৃদয় দহনে কুটে ।
হৃদয় দুয়ার খোলাই আছে, এ যে পল্লী মায়ের বুক
তোমায় পেলে ধন্য হবে, মনে জাগবে সুখ ।
এবার তবে শহর ছেড়ে ,পল্লীর পথ ধর
নতুন রঙে পল্লী মায়ের বুকটা তুমি গড়ো ।
নতুন করে বসতি গড়ো ,মনের অন্ধত্ব ভুলে
পল্লীর বুকে প্রাণ ফিরুক, অবাক কোন ভোরে ।