লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৪ জুলাই ১৯৮৮
গল্প/কবিতা: ৩টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কষ্ট (ডিসেম্বর ২০১৭)

কবিতা
কষ্ট

সংখ্যা

মোট ভোট

ইবনে মনির হোসেন

comment ৫  favorite ০  import_contacts ৩৯০
তুমি বৃষ্টি চেয়েছিলে ঝুম বৃষ্টি,
আষাঢ় ধারা শ্রাবণের মতো সৃষ্টি।
যদিও আমি চেয়েছিলাম অনাধারুন দৃষ্টি,
পারলামনা, তবু তোমার চাওয়াটা পূর্ণ করে দিতে!
মাঠঘাট, পথ, নদী-নালা ভরে দিতে স্রোতস্বিনী হয়ে।

কারণ, আমি দেখেছি তখন প্রকৃতির ঋতু থুত্থুরে বুড়ির,
হাড় কাঁপন বহিছে হিমধারা।
তাই, তোমার কথা রাখতে পারিনি ভারি বৃষ্টির ধারা।
তবে এসেছিলাম আমি ধূসর মেঘ হয়ে
কুয়াশার ছদ্মবেশে তোমাকে ছুঁয়ে দেবো বলে
অপেক্ষায় থেকেছি; জেগেছি রাত!
তোমার জানালার কপাট ধরে,
দরোজায় তখন লাগানো ছিল হিল।
তোমার বাগানের বেলী, কামেনী, হাসনেহেনা
ফুল গুলো বেশ সমাদর করে সুবাস দানে।
তোমার কথা বারবার পড়েছিল মনে, কত ফুল গুজে দিয়েছি তোমার কেশে। দূর্বাঘাস গুলো,
বসার মতো ঠাঁই দিয়েছিল পরম যত্নে, আর আমি অপেক্ষায় ছিলাম সুন্দর একটি প্রভাতের।

প্রভাত ঠিকি এসেছিল, তুমিও এসেছিলে সূর্য রাঙ্গা ভোরে।
যখন আমি চিকচিক মুক্তোর মতো হেসেছিলাম
ভেবেছিলাম তোমার কোমল হাতে, ছুঁয়ে দিবে আমায়।
আর আমি হেসে ওঠবো তোমার স্পর্শ পেয়ে, সত্যিকার
রাজকুমার হয়ে। শিশির বিন্দু থেকে মুক্তি নিয়ে চিরদিন তোমার হবো। কিন্তু এ আমি কি দেখলাম
প্রভাত রাঙা ভোরে!
সত্যি-সত্যি তুমি এতোটা বদলে গেছো? যা আমি ভাবতে পারিনি এই তুমি!
যাকে আমি চিনি আমার হৃদয়ের চির সবুজ মালঞ্চে
ভেবেছিলাম না, না স্বপ্ন দেখছি!
কিন্তু, পরক্ষণে আমার ভ্রম কাটলো, তোমার
আর তোমার হাতে হাত রাখা জীবন সঙ্গী নিয়ে শিশির মারিয়ে যাওয়া ভূতলে আমি মাটির সাতে মিশে।

জানি আমাকে আর পড়বেনা মনে তোমার আলিঙ্গনে।
তবে মনে রেখো, আমি এসেছিলাম কুয়াশা হয়ে
শিশির ঝড়া মুক্তো হয়ে
প্রভাত জাগা ভোরে অপেক্ষায় ছিলাম...

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • সাইয়িদ  রফিকুল হক
    সাইয়িদ রফিকুল হক ভালো লাগলো। শুভকামনা রইলো।
    প্রত্যুত্তর . ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া
    মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া শব্দ বিন্যাস চোখে পড়ার মতো... ভালো লেগেছে....
    প্রত্যুত্তর . ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৭
  •  মাইনুল ইসলাম  আলিফ
    মাইনুল ইসলাম আলিফ চমৎকার । কাব্য বলার ঢং দারুণ।।শুভ কামনা আর ভোট রইল । আমার পাতায় আমন্ত্রণ।
    প্রত্যুত্তর . ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ওয়াহিদ  মামুন লাভলু
    ওয়াহিদ মামুন লাভলু কবিতাটা অনেক মানসম্পন্ন এবং এর অর্থও বুঝতে পারা দুরূহ। আমার পক্ষে পুরোপুরি বুঝতে পারা অসম্ভব। তবে আমার মনে হলো, ব্যর্থ হওয়া একজন প্রেমিকের জবান এটা। প্রেমিকের প্রেমাস্পদ যখন অন্যের বাহুবন্দী তখন প্রেমিক তা দেখে যে কিরূপ কষ্টে কষ্টে জ্বলে পুড়ে মৃত্যুর কাছা...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ২০ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • Farhana Shormin
    Farhana Shormin শুভকামনা রইল।
    প্রত্যুত্তর . ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৭

advertisement