হে ভাস্কর?
তোমাকে বানাতে হবে এক প্রতীক শিল্প
আড়াআড়ি পায়ে পৃথিবীর তাবৎ কারুময় শব্দে
গাঁথা সোনার কাব্য শেকল।
হাতে প্রবীণ বট ঝুরির গেরুয়াবলয়,
কন্ঠে জড়ায়ে স্বর্ণলতার পরগেছো মালা।
হিজল ঝরাবে মৃন্ময় অভিষেকে
তাল পাতার ঝালর কটিদেশে।
আধুনিকতার লাল নীল
মরিচ বাতি বিস্রস্ত কুন্তলে-
আর চোখে পাংশুল অশ্র“লোর।
অঞ্জলি দেবার ভঙ্গীমায় কিছু তাজা খুন মাখা
আর কিছু সাগর সেঁচা শ্যাওলা সবুজ মুক্তো।
রদ্দুরে ঝলসানো হবে দেহ কান্তি।
হে ভাস্কর?
সব শেষে অবয়বে মেখে দিও
কিংসুক প্রগাঢ় রক্তাক্ত কিছু অক্ষমতা ।
অতঃপর ভেবে দেখো কি বলে ডাকবে তাকে?