একটা জীবন তো চলে যায় কোনমতে !
কিন্তু একটা মন?
নেইতো তার কোনো
দৃশ্যমান জীবনযাপন!
হয়তো প্রয়োজন হয়না তার
ডাবের জলে তৃষ্ণা মেটাবার,
তবু তৃষ্ণা তো সে
কম করেনা ধারন !

আকার অবয়বহীন,
তবু প্রতিক্ষণ জীবিকার দায়ে
সহ্য করে চলে
আত্মমর্যাদার বস্ত্রহরণ !
ক্ষুধা নেই
তবু কি ছেড়ে কথা কয় তাকে
দারিদ্রের তুমুল আলোড়ন?

কাম নেই
তবু জুড়োতে কামের দহন
শরীরের কাছে নিত্য হাত পাতা
যৌবনের চোরা-গলিতে তার নিত্য গমন!
দায় নেই সংসার-সামাজিকতার
নেই কোন স্বজন-কুজন,
তবু সিডর বিধ্বস্ত মন
লবনাক্ত জীবন-জমিতে
করে চলে স্বপ্ন বপন!

শরীরে দৃশ্যমান ক্ষতেরও
আছে উপশম,
কিন্তু অপূর্ণ বাসনার
অদৃশ্য জখম
রেহাই দেয় কি তাকে?
করে কি তাকে এতটুকু কম জ্বালাতন!

তেজ কমে এলে পর
শরীরের শেষ হয় জীবনযাপন,
কিন্তু পৃথিবীর বয়সী মন?
অলক্ষ্য যন্ত্রনায়
ডুকরে ওঠে,
অনন্ত আয়ু নিয়ে
প্রতিদিন করে চলে মৃত্যুবরণ!