আমি তো ভাই বাংলা ছেড়ে বাংলা খুঁজি;

গ্রেভেলিয়ার বনে আমি ঝিঙ্গা ফুলের জাংলা খুঁজি।

 

দিঘল গামের বনে যখন জোর বাতাসের দমকা উঠে,

দুর আকাশের কোনে যখন কালো মেঘের চমক ফুটে,

আমি তখন আকাশ জুড়ে কাল বোশেখীর চিত্র দেখি,

মনের মাঝে শ্রাবণ ধারায় ভালবাসার পত্র লেখি।

 

ব্ল্যাকটাউনে কালীগঞ্জ, এ্যাসফিল্ডে পোড়ামাটি,

প্যারামাট্টায় পরমাত্মা, নিত্য দিনের জিয়ন-কাঠি।

নীল পাহাড়ের সীমায় খুঁজি সীতাকুণ্ডের পাথর ছায়া,

হক্সবারিতে মেঘনা খুঁজি, স্রোতস্বিনীর দীর্ঘ কায়া।

 

ম্যাগপাইতে দোয়েল খুঁজি, ফিঙ্গে খুঁজি বনের ছায়ায়,

ক্যাঙারুতে হরিণ খুঁজি, পাইন গাছের গভীর মায়ায়।

বটল-ব্রাশে কদম খুঁজি, গাছের নীচে ঝরা বকুল।

গ্রীষ্ম এলে দিব্য দেখি আম কাঁঠালের রেশমি মুকুল।

 

জন বিরল পথে খুঁজি আলতা পায়ে পল্লী বালা,

নদীর বুকে খুঁজে বেড়াই সুতোয় গাঁথা নৌকার মালা।

পদ্মা নদীর ইলিশ খুঁজি নিপিয়ানের গভীর জলে,

সিডনীটাকে ঢাকা ভাবি কখন কিবা ভ্রমের ছলে।

 

ক্লান্ত দিনের শেষে যখন, ফেয়ারমন্টে রাত্রি নামে,

বাংলাদেশের ঝিঁঝি গুলো কানের কাছে এসে থামে।

সাত সাগরের পারে বসে আমি তখন চক্ষু বুজি,

বাংলা আসে বুকের কাছে, আমি শুধু বাংলা খুঁজি।

 

 

টিকা

(১) গ্রেভেলিয়া ও বটল ব্রাশ : অষ্ট্রেলিয়ার দুটি ফুলের নাম।

(২) গাম :  ইউক্যালিপটাস গাছ অষ্ট্রেলিয়ায়  গাম-ট্রি নামে পরিচিত।

(৩) ব্ল্যাকটাউন, এ্যাসফিল্ড, প্যারামাট্টা : সিডনীর তিনটি উপ-শহরের নাম। এগুলো বাংলাভাষীদের কাছে যথাক্রমে কালীগঞ্জ, পোড়ামাটি এবং পরমাত্মা নামে পরিচিত।

(৪) নীল পাহাড় : ব্লু-মাউন্টেইন - সিডনীর কাছের একটি পর্বতমালার নাম।

(৫) হক্সবারি ও নিপিয়ান : সিডনীর কাছের দুটি বড় নদীর নাম।

(৬) ম্যাগপাই :  অষ্ট্রেলিয়ার একটি পাখীর নাম।

(৭) ক্যাঙারু : অষ্ট্রেলিয়ার একটি পশুর নাম।