এমন কোন দিন ছিল না জিভ নড়েনি
এমন কোন ক্ষণ ছিল কি, মন রাঙেনি?

এমন কোন রাত নেই, স্বপ্ন হানা দেয়নি
লিখতে বসলে কলম চলেনি,
এমনটিও দেখা হয়নি।

মায়ের মুখ নাড়া দেখে কান্না থামিয়ে
ফ্যাল ফ্যাল করে তাকায়নি-
এমনটি শিশু কেউ দেখেনি।
প্রিয়ার কথা অস্পষ্ট, তাও কেউ কখনো বলেনি।

ভাষা, মনন, অন্তর যতক্ষণ চালু
বচন লেখনী, কিংবা চিন্তার কমতি, কখনো ঘটেনি

……………………
শিকড় উপড়ানো বৃক্ষ ফিরে তাকায়
ছায়া প্রত্যাশী পথিক আর শাখাশ্রয়ী পাখ-পাখালিতে।
মুকুলিত মঞ্জরীর ব্যর্থতার হা-হুতাশ!

কাগজের অস্থির প্রতীক্ষা- স্তনবৃন্ত ফেঁটে দুগ্ধের মত
গড়িয়ে পড়ে উন্মুখ কলমের কালি।
বিন্দু, দাগগুলো মূর্ত হতে চায়!
তবু কবি সাড়াহীন।

শুধু তোর জন্য আজ মৌনতা ভঙ্গ….
লিখতে বসেছি- একুশ, তোকে স্মরি।