পছন্দের পাত্রিটাকে খুব কাছে পেয়েও ভালাগার কথাটা বলতে না পেরে কেউ কেউ নিজেকে অথর্ব ভাবলেও, কখনো কখনো আমি একটু উল্টো করেই ভাবি। আমার মনে হয় আমি বলতে না পারলেও সেওত বলতে পারতো, কেননা সেওত ভালবাসে। তার এই চুপ করে থাকাটা আমার কাছে তার কৃপণতাই মনে হয়। কেননা সে শুধু শুনতেই চায়, এগিয়ে এসে বলতে চায় না। কিন্তু কারোই আর বলা হয়না কিছুই এবং সেই কৃপণতার মাশুল হয় বিচ্ছেদ, ‍বিরহ । আর কষ্ট মাখা আপসোস বেরিয়ে আসে দীর্ঘশ্বাস হয়ে...
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ ফেব্রুয়ারী ১৯৭৮
গল্প/কবিতা: ৪১টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৬৭

বিচারক স্কোরঃ ১.৭৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৯২ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কৃপণতা (নভেম্বর ২০১৮)

দুরের বাদ্য শুনে কী লাভ
কৃপণতা

সংখ্যা

মোট ভোট ১৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৬৭

কাজী জাহাঙ্গীর

comment ৬  favorite ০  import_contacts ২১১
হঠাৎ করেই হাতটা কেঁপে উঠে তোমাকে ছুঁতে চেয়ে
মাথাটায় একটা ঝাকুনি দিয়ে ধাতস্থ হই,
সেদিন যখন খুব করে হাসছিলে
নিয়ন বাতির আবছা আলোয় তোমাকে কী যে অপরূপ লাগছিলো
সেটা কি বোঝানো যাবে কখনো ?
সেই অপরূপতায় আমিও যেন খেই হারিয়ে ফেলেছিলাম
কেন যে এত কাছে এসেও তোমাকে বলতে পারলাম না
কোন যন্ত্রনায় নিত্যদিন ছটফট করি…
ভাবাবেগটাকে ইতি উতি করে কিছুতেই মুখ খোলাতে পারলাম না
যেন বলে্ উঠে ‘‘তোমাকে ছাড়া আমার কিছুতেই চলে না’
‘আমার দিন-রাত্রী’র জপমালায় শুধু তুমি আর তুমি’ আব্লা… আব্লা…
তুমিও যে কিপটে কম নও
আমি না বললেও তুমি কি এগিয়ে আসতে পারো না?
নাকি ‘লজ্জা নারীর ভুষণ’ এটাকেই ধরে নিয়েছো তোমার নিয়তির ‘ব্লু বুক’ ?
তুমি কি কষ্ট পাওনা এখন ?
কৃপণ নই আমি, বলতে পারো অথর্ব একটা
যাকে দিয়ে বলাতে পারলে না তিনটে শব্দ ‘আমি তোমাকে… ’
যাতে তুমিও হাতটা বাড়িয়ে দিয়ে বলতে পারতে ‘চলো হারিয়ে যাই’।
এখন খুব করে মাশুল দাও তোমার সেই কৃপণতার
শিউলী গুলো ঝরে গেলেও এখন আর কী করার আছে
কী করার আছে
গোধুলীর লালিমার ঢেউ তুলে তোমার অবয়ব এখন যদি অভিমানি অশ্রু ঝরায় ?
তুমি আর আমিতো এখন
বৈঠাহীন ভেসে যাওয়া তরীর এলোমেলো বাঁক
অথবা স্টেশনে দাড়িয়ে থেকে, ছেড়ে যাওয়া ট্রেনের দিকে তাকিয়ে থাকা চোখের আপসোস
অথবা ধরে নিতে পারো, সুযোগ কাজে লাগাতে না পারার কষ্টে
দুরের বাদ্যে নৃত্যরত একটা হাড়-কিপটে আবেগ …।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • মোঃ মোখলেছুর  রহমান
    মোঃ মোখলেছুর রহমান দুরের বাদ্যে নৃত্যরত একটা হাড়-কিপটে আবেগ....... ভাল লাগল।
    প্রত্যুত্তর . ১ নভেম্বর, ২০১৮
  • মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
    মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী তুমি আর আমিতো এখন
    বৈঠাহীন ভেসে যাওয়া তরীর এলোমেলো বাঁক
    অথবা স্টেশনে দাড়িয়ে থেকে, ছেড়ে যাওয়া ট্রেনের দিকে তাকিয়ে থাকা চোখের আপসোস
    অথবা ধরে নিতে পারো, সুযোগ কাজে লাগাতে না পারার কষ্টে
    দুরের বাদ্যে নৃত্যরত একটা হাড়-কিপটে আবেগ …। অসাধারণ এবং অসাধারণ ভাইয়া। ব...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১ নভেম্বর, ২০১৮
  •  মাইনুল ইসলাম  আলিফ
    মাইনুল ইসলাম আলিফ তুমি কি কষ্ট পাওনা এখন ?
    কৃপণ নই আমি, বলতে পারো অথর্ব একটা
    যাকে দিয়ে বলাতে পারলে না তিনটে শব্দ ‘আমি তোমাকে… ’
    যাতে তুমিও হাতটা বাড়িয়ে দিয়ে বলতে পারতে ‘চলো হারিয়ে যাই’।
    এখন খুব করে মাশুল দাও তোমার সেই কৃপণতার
    শিউলী গুলো ঝরে গেলেও এখন আর কী করার আছে
    কী করা...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১ নভেম্বর, ২০১৮
  • নাজমুল হুসাইন
    নাজমুল হুসাইন শেষ লাইনটা প্রাণ জুড়িয়ে দিয়েছে,ভীন গ্রহের কথা মালা যেন। দূরের বাদ্যে নৃত্যরত একটা হাড় কিপটে আবেগ...ধন্যবাদ জাহাঙ্গীর ভাই। আমার আপাতায় বরাবরের মত আমন্ত্রন জানিয়ে ছোট্ট চিঠি আপনার নিকট পৌছালাম।
    প্রত্যুত্তর . ৩ নভেম্বর, ২০১৮
  • লুতফুল বারি পান্না
    লুতফুল বারি পান্না চমৎকার, খুবই চমৎকার!
    প্রত্যুত্তর . ১২ নভেম্বর, ২০১৮
  • মুহাম্মাদ লুকমান রাকীব
    মুহাম্মাদ লুকমান রাকীব প্রিয় কবি/লেখক.
    অাপনাদের জন্য নতুন ওয়েব সাইট www.kobitagolpo.com
    তৈরি করা হয়েছে নতুন অাঙিকে।
    এখানে বর্তমান প্রতিযোগীতার জন্য নির্ধারিত “বাবা-মা” শিরোনামে লেখা জমা দেয়ার জন্য অামন্ত্রণ করা হচ্ছে। অাগ্রহীগণ ২৫ নভেম্বরের মধ্যে www.kobitagolpo.com এ লিখা জমা...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১৭ নভেম্বর, ২০১৮

advertisement