ওগো ও রাত তোর কি আছে মনে?
এইখানে এই চিলতে জানলা আলো করেই জোছনা বনেবনে ...
জোনাক উড়তো কত ফড়িং বিকেল শেষে সন্ধেকাশে
ঝাপসা সবুজ ছায়া ঝরতো ভূতের মতো আমাদের চারপাশে?

ওগো ও রাত তোর কি আছে মনে?
ভূতুড়ে আবছা ঘাটে পাশের বাড়ির বউ কাঁদতো আপনমনে?
ছোট ছিলাম বয়সে বড়দের কড়াশাসনে ঘাটলা যেতে মানা ...
তবুও ঠিকই কানে বাজতো ব্যাথার মতো অই বউটির কান্না!

ওগো ও রাত তোর কি আজ আমার মতোন দশা?
রোগবালাই বোঝাই বয়সের বোঝা বয়েবয়ে তারা খসা ...
জোনাকজোছনাহীন কালধারায় ভাসিয়ে দিনগুলি ...
দুজনে ভেসেছি একা এষণাতাড়িত শিখাময় পতঞ্জলি!

আয়রে দুজনে বাঁধি অধরা আলোজলের দিনগুলি ...
যেথায় জ্বলতো হৃত জোনাকজোছনাময় অলিখিত রাতগুলি!