নীল আকাশে ভেলার মতো থোপা থোপা
মেঘ দেখিয়ে ওরা বলেছে দেখ পূর্ণতা,
সাগরের বুকে তোলপাড় করা উন্মাদনায়
সৃষ্ট ফেনার রাশি দেখিয়ে বলেছে দেখনা পূর্ণতা,
আমি পূর্ণতা বুঝিনি।।

মিষ্টি ফুলে দুষ্টু ভ্রমরের গুনগুন আমন্ত্রণ
ওরা বলেছে শোন, শুনে দেখ পূর্ণতা,
জীবনের টানাপোড়নে যুদ্ধে নামা মানুষের ঢল
জ্যামে আটকানো গাড়ির সারি ওরা বলেছে দেখ দেখ পূর্ণতা,
আমি পূর্ণতা বুঝিনি।।

নববধূর চার বেয়ারার পালকি চলেছে উহুমনা উহুমনা
চরম উৎসব দেখিয়ে বলেছে দেখনা পূর্ণতা,
মায়ের কোলে ঘুমন্ত শিশুর মুখে ভোরের আলো
ওরা বলেছে দেখ দেখেনে পূর্ণতা,
আমি পূর্ণতা বুঝিনি।।

অবশেষে, শেষের দিনের শব-যাত্রায় সঙ্গী হয়ে
ধুপের ধোয়ায় বলেছে দেখলিতো পূর্ণতা
তবু, আমি পূর্ণতা বুঝিনি।।

আমি;
আকাশের শূণ্যতা, মেঘের ক্লান্তি,
সাগরের আর্তনাদ, ফেনার কান্না দেখেছি।
ফুলের নিঃস্বতা, ভ্রমরের কাঙ্গালপনা,
জীবনের অতৃপ্তি আর বাঁচার ব্যাকুলতা দেখেছি।
নববধূর ত্যাগ উৎসবে আহাজারি,
মায়ের চোখে সূর্যোদয়ের পর সূর্যাস্ত দেখেছি।
শেষের দিনে মানুষকে ধূপে
জ্বলে যেতে দেখেছি।

সত্যি বলো বন্ধু; তুমি পূর্ণতা বুঝেছ ?
আমি আজ ও পূর্ণতা বুঝিনি !!!