আমার "আঁধারের উত্তরাধিকার" কবিতাটির পরিপূর্ণ বিষয় সামঞ্জস্যতা আছে বলে আমি বিশ্বাস করি। কবিতাটিতে মাতৃগর্ভের অন্ধকার থেকে শুরু করে মানুষের সমস্ত জীবনের নানা দুঃখ কস্টকে আঁধারের সাথে তুলনা করা হয়েছে। বিভিন্ন উপমা, অলংকার এবং অনুপ্রাস ব্যবহারের মাধ্যমে কবিতাটিকে জীবন্ত করে তুলে ধরা হয়েছে। আধুনিক গদ্যধারা লেখা কবিতাটির সাথে মুক্ত ছন্দের একটি অপূর্ব মেলবন্ধন জড়িয়ে আছে। বিষয়বস্তু, ভাব বিন্যাস এবং গুরু গম্ভীর শব্দ চয়নে কবিতাটি নিঃসন্দেহে পাঠক প্রিয়তা পাবে বলে আমি বিশ্বাস করি।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ ফেব্রুয়ারী ১৯৭৩
গল্প/কবিতা: ৭৯টি

সমন্বিত স্কোর

৪.৮৫

বিচারক স্কোরঃ ২.৭৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.১ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

আঁধারের উত্তরাধিকার
আঁধার

সংখ্যা

মোট ভোট ১৪ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.৮৫

জসীম উদ্দীন মুহম্মদ

comment ৭  favorite ১  import_contacts ৩৯০
মাতৃগর্ভ থেকে প্রারম্ভ হয়েছে যে আধাঁরের উত্তরাধিকার
এখনও বয়ে চলেছি তার সর্বৈব লেনাদেনা
কত সমুদ্রের জল ইতোমধ্যে ফেনা হয়েছে ফেনা---
তবু এতোটুকু আলো দিগন্তরেখায় আজও হয়নি কেনা!

চোখ মুঁদলেই রাহুগ্রস্ত হই--- শনি, মংগল লাগে না
চারপাশে এখনো নব্য প্রেতাত্মার সাথে খাবি খায়
আদিম আধাঁরের প্রাগৈতিহাসিক গডজিলা
এই আধকাঁচা আধাঁর দেখতে কোনো টিকেট লাগে না!

তবুও সাধের হরিদ্রা জীবন কোথাও থেমে থাকে না
ঠিক ঠিক চিনে নেয় কাঁচামরিচ পেঁয়াজ, রসুন, আদা
আমার আঁধার বসতি দেখে স্বর্গ থেকে হাসেন দাদা
তবুও -------
বেভুলা পথিক তেপান্তরের মাঠ চিনতে ভুল করে না!

মাঝেমাঝে চোরাই পথে কিছু ভালোবাসার আলো আসে
তখন আমার স্বর্গত দাদীমা ভাঙা ভাঙা দাঁতে হাসে
আমি কেবলা হাসি না
আমি হাসতে পারি না
কেবল গনেশ উল্টে যায় গাণিতিক সূত্র,পদ্যের পর পদ্য
প্রতিপাদ স্থান ধরে টান দিলেই বুঝি রহস্যের সব জট
আলগা হয়ে রচিত হবে এ জীবনের প্রতিপাদ্য!

তবুও আমার, কোনো গন্তব্য নেই নগদ মূলধনী সান্ত্বনার
পোকামাকড়ের ঘর বসতিতে বসত করে যে আঁধার....
তোমাদের কথিত সভ্যতায় সে আমার,
নেই কোন অধিকার;
তবুও একদিন অন্ধকারের বুক ছিঁড়ে আলোর জন্ম হবে
এই হলো আমার রেখে যাওয়া ভবিষ্যৎ প্রাধিকার!!

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement