অক্ষর বিহীন কবিতার খাতায়
খেলা করে শব্দের জোনাক।
যেন রাতের নিরবতায় পুড়ে পুড়ে খাক হয় সোনালী সকাল।

হাতের ইশারায় লেপ্টে থাকে কথার মলাট,
নৈঃশব্দের উলটপালট পথে বিস্মৃতির গল্প বেদনা জাগায়।

একদিন ফাল্গুনে চোখের শিশিরে জমাট মেঘ
বৃষ্টি হয়ে ঝরেছিল।
একদিন ফাল্গুনে পীচ পাথরে পূর্ণিমা প্রেম
রক্তিম পলাশ হয়ে ফুটেছিল।
একদিন ফাল্গুনে বিশ্বকে কাঁপিয়ে দেয়া জনস্রোতে
কিছু প্রাণের আত্নাহুতি, রাঙিয়েছিল গর্বিত হৃদস্পন্দন।