বৃষ্টি ভেজা একটা আকাশ
হাত বাড়িয়ে ডাকে,
মন চাইছে হারিয়ে যেতে
ছাড়িয়ে পাহাড় টাকে;
বৃষ্টিতে আজ ভিজবো বলে
ঘর ছেড়ে তাই বাহির হলাম,
বৃষ্টি কোথায়, বৃষ্টি তো নেই
ভিজবো তবু, নাইবা তার দেখা পেলাম;
আরও দু পা যেই ফেলেছি
মেঘের ধ্বনি কান ফাটাল,
মন বলল বৃষ্টি হবে
মেঘদূতেরা ডাক পাঠাল;
আকাশ পানে তাকিয়ে দেখি
মেঘের মেলা আকাশ জুড়ে,
টুকরো টুকরো সাদা তুলো
এদিক ওদিক যাচ্ছে উড়ে;
কালো মেঘের কাজল দিয়ে
স্বপ্ন আমার চোখে আঁকি,
মেঘেরা কি পালিয়ে গেলো
আজকে আমায় দিয়ে ফাঁকি?
বৃষ্টি ভেজা শহর টাকে
অচেনা যে ভীষণ লাগে,
ঘুমিয়ে থাকা ইচ্ছে গুলো
নতুন করে আবার জাগে;
হাত বাড়িয়ে ছোঁব আকাশ
বৃষ্টি আমি মাখব গায়ে,
জলের ফোঁটা নূপুর হয়ে
বাজবে তারা আমার পায়ে;
আকাশ ভেঙ্গে বৃষ্টি নামুক
এইত আমি চাই,
নিভে যাবে বুকের আগুন
ভিজে যাবে ছাই;
বৃষ্টি তুই নামলে আজ
হৃদয় টাকে ভেজাব,
বৃষ্টি তোর স্পর্শে আর এক
নতুন জীবন পাব;
হাসছে দেখো গাছের পাতা
ভিজছে বৃষ্টি জলে,
শহর জুড়ে বর্ষা এল
ভিজিয়ে দেবে বলে;
বৃষ্টি আসে, বর্ষা আসে
আসে মেঘের দল,
বৃষ্টি নামে মেঘলা মনে
চোখের কোনে জল;
বৃষ্টি এলেই মনে ভাসে
ছোটবেলার কথা,
যতই খুঁজি পাইনা তারে
স্পর্শ করে ব্যথা;
কাগজের সেই নৌকা গুলো
ভাসিয়ে দিতাম জলে,
জলের তোরে দুলতে দুলতে
কোথায় যেত চলে;
আজকে আবার বৃষ্টি হবে
ধুয়ে যাবে ক্ষত,
দিনে দিনে উষ্ণ হৃদয়ে
জমা আছে যত।।