কবিতাটিতে বিভীষিকার অাঁধারের কথা বলা হয়েছে। মনের কোণে জমা হওয়া বিষাদ গুলো ফুটানোর চেষ্টা করেছি। গুমট অতৃপ্ত সুখগুলো অাঁধারের মত। তবুও অবুঝ মন দৌড়াতে যেয়ে পায় শুধু মরিচিকা। অন্তরের অতৃপ্ত সুখের অসুখ মানুষকে অাঁধারে ঠেলে দেয়।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৭ নভেম্বর ১৯৮৯
গল্প/কবিতা: ৯টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

অন্ধকারের আলো
আঁধার

সংখ্যা

ধ্রুপদী শামিম টিটু

comment ১৮  favorite ১  import_contacts ১৫৯
মা‌ঝে মা‌ঝে ম‌নের কো‌ণে জমা মেঘগু‌লো
বড্ড বে‌শি অভিমা‌নি থা‌কে।
রা‌তের বিষাদময় অন্ধকারের সুখগু‌লো
চাঁদের আলো‌তে না দে‌খে
নগরীর নিয়ন আলোর ঝাপসা ফ্রে‌মে
দেখ‌তে বেশ গুমট অতৃপ্ত সুখ পাওয়া যায়।
ছুট‌ছি ‌আমি ভীষণ ভা‌বে,
প্রা‌প্তিটা ছু‌তে যে‌য়ে দেখ‌ছি সবই যেন ম‌রি‌চিকা।
গাঢ় রক্তাক্ত অন্তর বিষাক্ত যন্ত্রনার সুখ নেই
দুঃখ ‌বিলাশ ক‌রে। আর আমি শুধু
তা‌ধিন তা‌ধিন নে‌চে যায়
নিরাশা নামক বি‌ভী‌ষিকায়।


advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement