স্বচ্ছ আয়নার পূর্ণতায় মগ্ন হয়ে
দেখি এক অসম্পূর্ন প্রতিচ্ছবি,
সদ্য ঘুমভাঙ্গা স্বপ্নগুলো-
বদলে যায় ছেড়াখোড়া বিবর্ণবা স্তবতায়।
যদিও সম্পর্কগুলো এখনও হয়নি বোনা,
আর আমি সময়ের জালে ফেঁসে গিয়ে ভাবি
কিছুই তো হয়নি বলা,বলতে পারিনি-
না পাওয়ার যত অর্বাচীন বেদনা
আর তারও অধিক-
যা পেয়েছি তার কষ্ট নিয়ে
পাডু বিয়ে বসে থাকি মন খারাপের নদীতে,
আঁকশীর হ্যাঁচকাটানে মেঘ পেড়ে এনে
বুঁদ হয়ে শুনি অন্ধকারে জলের গান-
এখনই যতি চিনহ্ এসে যদি
সংগপোনে চুমু দিয়ে যায়
তোমার চুলের মৃদু গন্ধের মত,
আরো কত স্বপ্ন দেখা রয়ে যাবে বাকি।
যে দিগন্ত আছে দৃষ্টিসীমায়
হাত বাড়ালেই তাকে যায় কিছোয়া?
তবু তাকে পাওয়ার
কেন এই ক্ষন চর আকুলতা
দিগন্ত পেলেই কি পাওয়া যায় পূণর্তা?