ফুলতো অনেক দিয়েছি
এবার ঢিল ছুড়ে রক্তাক্ত করতে চাই
তোমার মিষ্টি কথাগুলো
প্রলোভনের সু উচ্চ চূড়ায় বসে তুমি প্রতিষ্ঠা
করতে চাও একুশ শতাব্দীর দানবধীকার
আমার ছোট সবুজ দেহে রক্ত মাংসে গড়া
যে পোকাদের বসবাস তাদের মৃত বিবেক গুলো
একদিন জেগে উঠবে একসাথে
সরলতার শাড়িতে লজ্জা ঢাকা যায়না জেনে গেছি।
গোলাপের জিহ্বায় বিষাক্ত লালা দেখে
ভয়ে চিৎকার শোনাবো না আর,
কেবলী প্রতিবাদের গর্জন শুনবে এখন
রাইফেলের ডগায় ফুল ফোটাতে চেয়েছি বলে
ভেবো না বুলেটকে ভয় করি।
সমপ্রীতির মাইন ফোটাতে চাই প্রতিটি পড়সীর ঘরে।
বারুদের গন্ধকে ভয় করি না।
কেবলি ঘৃণা করি।