ওরা দিন মজুর, ওরা খেটে খাওয়া মানুষ
রক্ত ঘাম নিংড়িয়ে ওরা কামায়,
অভুক্ত সংসারে খাবার তুলে দিয়ে তবে খায়
কোথাও কভু যদিবা কাজ পায়।

আছে কারো নামমাত্র ভিটেমাটি-শীর্ণ কুঠির
কারো যেখানে রাত সেখানে কাত,
যেন ভাসমান পানা-স্রোতের টানে দিন রাত
বাঁধে আশা-সুদিনের দিন’পাত।

যথা তথা সবলের-আঘাতের পর আঘাত
অভিশপ্ত জালিমের লম্বা হাত,
এই ঘাটলা ছেড়ে ঐ ঘাট-ঘুরে নিশি রাত
কপালে জুটেনা এক মুঠো ভাত।

সম্পদ পদবী নিয়ে-আসেনা কেউ ধরাধামে
শূন্য হস্তে প্রস্থান-শূন্য পিদিমে,
প্রতি সৃষ্টিকণায় আছে অধিকার- আদমের
হায়-তবু এরা-ই কেন মাতমে।

কেন সইবে অপবাদ-দৃষ্টি তুচ্ছ তাচ্ছিল্যের
বইবে ক্ষত-দুষ্টের ছোবলের,
দারিদ্র সাথে নিয়ে-হতে হয় ভূমিষ্ট যাদের
কেউ কি বলবে-কি দোষ তাদের ?