সময় পেলেই খুলে দেই স্মৃতির দুয়ার
জীবনের পাকদণ্ডী বেয়ে
বকুলের মিষ্টি ঘ্রাণে খুঁজে নেই
পরিচিত ঘরের উঠোন
ফেলে আসা পুতুলঘরে
এখনো থমকে আছে কিছু বিশুদ্ধ প্রহর

রোজকার ভাবনারা নিয়ে যায়
শৈশবের নির্ভেজাল সময়ে
পাড়ার বন্ধুরা, স্কুলের বৈকালী মাঠ
রূপকথার গল্পের মতো ভিড় জমায়
হাওয়াই মিঠাই- হজমীর ফেরিওয়ালা
দুপুরের ঘুম কেড়ে নেয়

কুড়িয়ে চলি ফেলে আসা নুড়ি
আবেগি স্মৃতির কণা
শৈশবের কিছু ছেড়া টুকরো
কিছু বিস্মৃতি কিছু উত্তাপ
বিশুদ্ধ সুবাসের তোড়ে
উড়িয়ে দেই তেপান্তরের ঘুড়ি

আবেগের সিন্দুক খুলে আনা
সরলতার কিছু পাঠ
তুলে নেয় সময়ের যবনিকা
খুলে দেয় বুকের কপাট।