জ্যৈষ্ঠের ব্যস্ত রাস্তায়,আটকে পড়া মানুষের
ঘামে ভেজা ভাবনায় খেলে যায়,
বৃষ্টির মায়াময় বিন্যাস ।

গেঁয়ো বালকের দলে ,বৃষ্টির ডামাডোল
আম কুড়াবার ছলে
পারুলের বনে জলকেলি ।

নতুন দাম্পত্য চোখে লাগে জলরং
প্রথম শ্রাবন ঢলে, ভিজিয়ে নেবে
বাসর রাতের বোনা স্বপ্নগুলো ।

সদ্য প্রেমে পড়া তরুন, মনে প্রতীক্ষা
বর্ষার প্রথম কদমের সাথে একমুঠো
ভালবাসা গুজে দেবে প্রিয়ার খোঁপায়।

চৈত্রের চৌচির মাঠে চেয়ে অসহায়
কিষাণ জানায় আকুল প্রার্থনা ,
'' আল্লাহ মেঘ দে, পানি দে'' ।

এক পশলা বৃষ্টির অপেক্ষায় ছিলাম
বরাবর, বৃষ্টিবিলাসী এই আমিও
কখন নামবে তৃষ্ণা মেটানো ধারা ,
উদাসী চাতক থাকে যার প্রতীক্ষায় ।