যে ভয়ে মা ফেললে আমায়
নর্দমারই মাঝে,
সেই সম্ভ্রম কি আছে তোমার
কুটিল এ সমাজে!

আজ আমি তাই চলছি ভেসে
অথৈ সাগর জলে,
অন্য কাউকে মা ডাকিনি
তোমায় পাব বলে।

নাম ঠিকানা নেই যে আমার
থাকি ওলি গলি,
মায়ের ক্ষুধা পেটের ক্ষুধা
মাথায় নিয়ে চলি।

মায়ের হাতের খাবার আমি
খাইনি কোনো কালে,
ক্ষিধে পেলে তোমায় ডাকি
দেয় না কেউ ভাত থালে।

মনে মনে মাগো তোমায়
একটি কথা শুধায়,
এ ভুবনে মা আছে যার
আছে কি সে ক্ষুধায় ?

পেটের ক্ষুধা মিটায় দিয়ে
পঁচা বাসি খাবার,
মাঝে মাঝে সেটাও নিয়ে
কাকে করে সাবাড়।

তোমার ক্ষুধা কেউ না মেটায়
কেউ শোনে না কথা,
দূর দূর করে দেয় তাড়িয়ে
বলে যথা তথা।

কোথায় আছো মাগো তুমি
গেছো কোথায় চলে,
ক্ষুধা নিয়েও বেঁচে আছি
তোমায় পাব বলে \\