কষ্টের শেকলে কেন বাধলে হৃদয়?
আমি তো কষ্টের শোয়ারী নই,

মায়াবী নীল খামের আবেগভরা চিঠি,
কোথায় ? সেতো আর আসেনা!
কেন আসেনা?
আমি তো উচ্চাশায় বিভোর নই,
নই কোনো হীরা মনির কান্ডারী!

তবে কেন ফাল্গুনের শেষ শিশির বিন্দুর মত চলে গেলে?
বসন্তের পল্লবীর মত ঝড়ে গেলে?
আসমানী রঙে বিদায়ের ডানা মেলে,
চলে গেলে অনুভূতির শেষ ঠিকানায়..

আমি কেমনে রইব মাটিতে দাড়ায়?
যখন তুমি শুয়ে মাটির গোরে,

আমি পারিনা,
আমায় অশ্রু জড়ায়ে ধরে।
অশ্রু বাণে সিক্ত নয়ন আমার,
তুমিও কি সোনা কাদছো অমন করে?

এইতো ক'টা দিন,
মহাকাল আমায় কথা দিয়েছে,
মৃত্তিকার ঐ আঁধার গোরে তোমার আমার বাসর গড়েছে।
মহাকাল বলেছে,
তোমার আমার মিলন হবে স্বর্গ পাড়ে,

কাদেনা সোনা,
জানি কষ্ট হচ্ছে,এইতো ক'টা দিন,
স্বর্গ পাড়ে ভালবাসায় বাজবে সুখের বীণ।

মনে পড়ে সোনা?
সেই যে তুমি ঘুমাতে আমার বুকে,
আর ছন্দ গাঁথা কাব্ব কলি বুণতে হৃদয়াচলে,

সোনা,তোমায় যে আমার খুব মনে পড়ে,
মনে মনে রাত কাটে,ভোর হয়
স্মৃতিগুলো বারবার কড়া নাড়ে।

আমি যে কিছুতেঈ পারিনা সইতে,
পারিনা আর একাকী বেচেঁ থাকতে।
আজ কষ্ট আমায় গ্রাস করেছে,
সুখ আমায় করেছে পরিত্রাণ,
ধরণী মোরে বিদায় দেবে তাই
কবর আমায় করছে আহবাণ।