এক যে ছিল সোনার ছেলে
সোনার মতন মুখ
অনাহারে কাটতো দিন
পেতনা ভাত এক মুঠ ।

দুঃখ জালা কষ্ট দিয়ে
গড়া যে তার জীবন
এই জগতের সবাই যে পর
নেই কেউ তার আপন ।

টোকাই বলে ডাকে সবাই
আদর করে না কেহ
ধনীর ঘরে এমনি ছেলে
পুষ্ট যে তার দেহ ।

রুটি আর কাগজ কুড়াতে
কাটে যে তার বেলা
অন্য শিশুরা করে তখন
নানা রঙের খেলা ।

এই ছেলেটি গাইতো আবার
বাশীর সুরে গান
শুনে সকলে মুগ্ধ হতো
জুড়িয়ে যেত প্রান ।