লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৭ মে ১৯৬৮
গল্প/কবিতা: ১১৩টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftভোর (মে ২০১৩)

যা পেলাম
ভোর

সংখ্যা

মিলন বনিক

comment ২০  favorite ১  import_contacts ১,৩৯০
অনেকদিন পর-
লাগলো ভালো সবকিছু, নতুন করে,
দেখলাম ভোরের আকাশ, হাওয়া টলটলে।
ঢালু পাহাড়ের কোলে সাদা সাহেবের বাড়ী,
পাখিদের প্রাতঃ যাত্রা জীবিকার স্বার্থে।
নারকেলের সরু পাতার উন্মত্ত নাচন,
বুঝি দেবাদিদেব সূর্যের আগমনী সম্ভাষণে ব্যস্ত।
হালকা মেঘের চিরন্তন আনাগোনা
আমার স্বপ্নে লালিত্য পৃথিবীর
একটা অংশে ছিল বিশ্রামের স্নায়ু দুর্বলতা।
জেগে উঠি ভোরের নিমন্ত্রণে, পাখির গানে-
সবকিছুই নীরব, আমার পদধ্বনিও ছিল শংকাগ্রস্থ, নিঃশব্দ।
মিষ্টি কণ্ঠে সুরের সাধনা, প্রেম একবারে এসেছিলো নীরবে---
মনোযোগ স্থির, কোনদিকে তাকায়
গান না দূর্বা ঘাসের শিশির ?
ভোরের প্রত্যাশায় কিছু ছন্দহীন কলগুঞ্জন,
প্রেয়সীর সাধনায় হৃদয়ে রচিত হয়, অত্যাশ্চর্য এক সৌধ।
প্রেয়সী! সে তো কবে হারালো
এত ভালোলাগার মাঝে, সংগোপনে
কত খুঁজলাম, সাদা সাহেবের রঙ্গিন পর্দার আড়ালে,
ভোরের টলটলে হাওয়াই, পাখিদের যাত্রার শেষ সীমান্তে--
কেউ নেই কোথাও নেই।
শুধু আমি আর আমার নিঃশ্বাস,
তন্দ্রাহীন দুটো চোখ, বিশ্রামের ক্লান্তিতে ঢুলু ঢুলু
তবুও ভালো লাগলো সবকিছু, অনেকদিন পর
চোখে পড়ল অনন্তÍকালের সৌন্দর্য।
আমি হারালাম নতুন করে, তাও অনেকদিন পর
প্রিয়ার অন্তর্যামী ঠিকানা খুঁজতে গিয়ে বহুদিন পর,
সুন্দরের মাঝে যা পেলাম সে আমার অনন্ত স্বত্বার
ভালো লাগাকে, তাও কতদিন পর।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement