দুখিনী জীবন কাঁদায় দুখের রাত্রি
জোৎস্নাভেজা জোনাকিরা জলের আয়নায়
বাজিয়ে চলে প্রেমের নূপুর,
আড়ালে সেরে নেয় রাত্রির সহবাস।
মৃত্যুর শিরোনাম যখন গায়েবি আওয়াজ তুলে
উইপোকারা মেলে ধরে পাখনা।
মানুষের বিভীষিকা,
মৃত্যুর সমন জারি হয় মানুষেরই হাতে।
অচ্ছ্যুত ভগবান দূরে দাঁড়িয়ে মৃত্যুর
মিছিল গুনে এক----দুই----তিন।
এভাবে সংখ্যা বাড়তে থাকে শত---সহশ্র,
কী-ই বা করার আছে তার?
এখানে সিঁধু কানু’রা বেঁচে থাকে মানুষের দয়ায়।
মৃত্যুর শিরোনাম বুঝিয়ে দেয়
জন্ম জন্মান্তরের অধিকার।