বর্ষার জল ছুঁয়ে সিক্ত গোলাপি ঠোঁটে
অদ্ভুত চাহনির নিবিড় আলিঙ্গনে
চোখে চোখ রেখে কি যেন বলতে চাও তুমি?

আমি যে দীর্ঘ অপেক্ষায় পরঞ্জয় রণবীর।
কখন তোমার ঠোঁটের ফাঁক গলে বেরোবে-
আমার আজন্ম লালিত স্বপ্নের অমিয় বাণী?

তেমার অলোকসুন্দর কেশের মায়ায় জড়িয়ে আছি
অর্বাচীন বয়স থেকে অসন্দিগ্ধ আজ অবদি।
তুমি কি বুঝতে পার না এ হৃদয়ের অনুভূতি?

তেইশটি বসন্ত ফুলে গাঁথা মালা থরে থরে-
সাজিয়ে রেখেছি তোমায় দেব বলে
ওগো চকোরী, কবে পড়বে তোমার শুভ দৃষ্টি?

মুগ্ধ নয়নে চেয়ে থাক তুমি সংগোপনে
লজ্জার খাঁছা ভেঙ্গে বাতাসের কানে কানে বলে দাও
যে কথা হয়নি বলা, বলতে গিয়েও পারনি আমায়।