লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৭ মার্চ ১৯৮০
গল্প/কবিতা: ২৩টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৬০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftগ্রাম-বাংলা (নভেম্বর ২০১১)

আমার প্রিয় বাংলা
গ্রাম-বাংলা

সংখ্যা

মোট ভোট ৬০

সঞ্চিতা

comment ৭৭  favorite ৪  import_contacts ৮৪২
আমার গাঁয়ের ছোট্ট সেথা রূপসী নদীর ধরে
বউ কথা কও হিজল গাছে নিত্য নৃত্য করে ।
সবুজ ধানের নরম চাদর করে আপ্যায়ন,
অবারিত সবুজে জুড়ায় চক্ষু –মন ।
বাংলা মায়ের রুপের কথা কি করি ব্যাখ্যান
সার্থক জনম মাগো – তব অবদান ।
ভর দুপুরে রাখাল ছেলে ধরে বাঁশির টান
সুর আবেশে দূর হয়ে যায় ক্লান্তি অবসান ।
আম- কাঁঠালের গন্ধে মন ভরে জ্যৈষ্ঠ –বোশেখ
চিত্ত বলে সেরা রানী – ‘বাংলা’ ই এক
রঙিন পাখি মাছরাঙা ইতিউতি চায়
সাদা বক উড়ে দেখে মাছেরা পালায়।
কদম্ব গালিচা কয় শুভ বরষা
শ্যামকালা বুঝি এলো সহসা।
কলসি কাঁখে গাঁয়ের বধু সিক্ত বসন গায়,
সরল লাজুক চাহনিতে ধীরে চলে য়ায় ।
শিশির ভেজা শিউলি ছড়ায় সুবাস অপরূপ,
শরৎ আকাশ বলে শ্যামলা বাংলা মায়েরি স্বরূপ
এমন দেশ আর গ্রামের স্বাদ কোথাও পাইনি খুঁজে
মাগো তোরই কোলে মরতে পারি সুখে দুচোখ বুজে ।
কার্তিকের নতুন ধানে-নব উন্মাদনা প্রাণে
কৃষকের মুখে হাসি মায়াময় মনোরম ।
বাংলা মম প্রিয় দেশমাতৃকা বড় আদরের ধন ।
দক্ষিণা বায়ু পড়শিয়া কহে শীতের আগমন
খেজুর রসের পিঠায় বাড়ে আনন্দ ঘন ।
গ্রাম বাংলার দামাল ছেলে তোমায় ভালবেসে,
স্বাধীনতায় দিল প্রাণ স্বেচ্ছায় হেসে–হেসে ।
বাংলা আমার তৃষ্ণার জল তৃপ্ত শেষ চুমুক,
আমি একবার দেখি,বারবার দেখি,দেখি বাংলার মুখ।
ভালোবাসি বাংলা আমার , ভালোবাসি মোর গ্রাম
তোর মায়াতে ভালবেসে যাব অবিরাম।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement