তুমিই বলো, তোমাকে কতটুকু ভালোবাসি? একটুকুও না!
কিভাবে ভালোবাসবো? তোমাকে কিভাবে ভালোবাসলে তুমি খুশি হবে?
আমার ভালোবাসার বোধ এতো নগন্য যে
তা তোমাকে এতটুকু স্পর্শ করতে পারেনা।
আমার সমস্ত অনুভূতি আর ভাবনারা তো তোমারই দখলে …
তারপরও তোমাকে ভাবি, ভাবতে ভালো লাগে বলে।
আমি একমুঠো রোদকে হাতে নিয়ে ভাবি, এইতো তুমি আমার হাতের মুঠোয়।
আমি সেই মুঠো খুলতে ভয় পাই যদি তুমি হারিয়ে যাও।
জানিনা, কোন্ গভীর বিশ্বাস আর অজানা ভরসায় আজও তোমাকে ভালোবেসে চলেছি আমি।

আমি খুব সহজেই থাকতে পারবো তোমার জীবনে বিকেল বেলার বৃষ্টি হয়ে,
তোমার ক্লান্তিময় মুখ আমি ভিজিয়ে দেবো আমার ক্লান্তিহীন ঝুমঝুম বৃষ্টির সুরে।
আর আমার দুপুর তার প্রখর রৌদ্রকে বুকে নিয়ে তোমার অস্তিত্ব খুঁজে ফেরে-
তোমার বিকেলে আমার বৃষ্টিরা প্রাণপন চেষ্টা করে তোমাকে একটু ভিজিয়ে দিতে।
প্রিয়, আমি তোমার স্পর্শহীন ভালোবাসায় মত্ত;
আর কিভাবে ভালোবাসা যায়, বলোতো?