ব্যর্থ জীবনে কষ্টের যে সময়গুলো কুড়ে কুড়ে খায় সে সময়গুলো কালো আঁধারের মতোই অন্ধকার। দেখা যায় না শুধু অনুভব করা যায়।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১০ ডিসেম্বর ১৯৭৪
গল্প/কবিতা: ৪১টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

হেমন্তের পর ব্যর্থ হেমন্ত
আঁধার

সংখ্যা

খোরশেদুল আলম

comment ৩  favorite ০  import_contacts ৪১
হৃদয়ের অন্তপুরে যে বাসা বেঁধেছিল
হেমন্তের শেষ বিকেলে, সূর্য ডুবার আগে
জীবনে কলুষিত এক বিমূর্ষ মুহূর্ত
জন্ম হয়েছিল তার উল্টোপিঠে।
শেষ দৃশ্যের অবতারনা ছিল খুব তড়িঘড়ি
আমার মন ছিল ভালোবাসার পোয়াতি।
শুরুতে শেষ অংকণ, তার পর শুরু।
কাঁঠালি চাপার গন্ধ ভেসেছিল কর্দমায়
আঁধারের কালোতে ছিল তার বসত ঘর।
পদ্মের চেয়ে গোবরছিল বেশি উজ্বল
মন ভ্রমরা ভুল করে বসে ছিল একদিন
তার পর আর সূর্য উঠেনি প্রকৃতির ঘুর্ণনে
ফাগুন আসেনি হৃদয়ের উঠোনে,
শেষ দৃশ্যের আগে ঘুরে এসেছে সময়ের
অক্টোপাস । বিষাদময় পুরনো ক্ষণ
সেই চেনা প্রথম অংকের প্রথম দৃশ্য
বিমূর্ষ মুহূর্ত, হেমন্তের পর ব্যর্থ হমেন্ত।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement