এই উল্টো রথের ঢাকনা, আজ উপচে পড়ছে; যাক না
যাই পাচ্ছি এ মিনি মাগনা, রেখে নিজেকে মাপছি- হরদম

শুধু বেসামাল হড়কাচ্ছি, এ কেমন তোমার নাচ! ছি!
যেন আনাড়ি আঙুলে বাজছি, কোন উতলা তারের সরগম

যত খাই জল, বাড়ে তৃষ্ণা- তুই বুঝতেই পারছিস না!
কেন ভেজা হাতে ছুঁয়ে দিসনা- ভেবে জেগে ওঠে রোখা ইচ্ছে

এত স্বপ্ন দেখার শর্ত! বুকে কষ্ট পোষার ঝড় তো!
দেখ এড়াচ্ছি সব গর্ত, তাও সব্বাই মিলে খিঁচছে

রোখ, বেড়ে বেড়ে হই স্বৈরী, এই আগুন সময়- বৈরি
মেঘ- ঈশানের থেকে নৈঋত; কালো আকাশ ছুঁড়েছে উল্কা

একা চেপে রাখি সব ইচ্ছে, কথা বৃষ্টি ফোঁটায় ভিজছে
কে হেরে যায়, কে যে জিতছে? কোন বিচার হয়নি- ভুল কার

রোজ নিরন্তর এই চেষ্টায়, আজো পাইনি তোমার শেষ রায়
জানি ভুলের সাথেই বেশ যায়, তাই তোমার চোখেই মন দিই

এই স্বপ্ন ছড়ানো বৃত্তে, যত আশার কুহেলি- মিথ্যে
তবু একাত্মা থেকে দ্বিত্বে; নাও, নতজানু আমি- বন্দী