শুধু ভয় লাগে, ভয়টা মনের কোণে
কেমন করে যাচ্ছে দিন গোনে গোনে গোনে।

ভয় লাগে গো ভয়, ভয়ে আত্মা কাঁপে
দিন যায় চলে তবু মন ভরা পাপে।

লাগেরে ভয় শুধু, জ্যোতি যাবে নিভে
নিভে গেলে বলোতো আমার কী হবে?

ভয়টা বাড়ছে দিনে দিনে, মনে খুব ভয়
কেমন করে দেহের জোড়ায় হচ্ছেরে ক্ষয়।

উহ্ কি ভয়রে! ভয়টা কেমন করছে তাড়া
ঘুরে ঘুরে খুঁজে তারে হচ্ছি সারা।

আহ্! ভয় মনের ভিতর; ভয় লাগছে তো শুনো!
দেখতে চাচ্ছি যাকে দেখিনি এখনো।

ধীরে ধীরে ভয় ঢুকছে মনের ভিতরে; ভয় ভয়
চোখের দৃষ্টি ঝাপসা হবে, এ কেমন করে হয়!

ভয়ে অস্থির থাকি সারাক্ষণ; বসবাস ভয়ের বাড়ি
দিন মাস বছর যায় কেন শুধু সময়ের কাছে হারি।

ভয়ে থাকি সারাদিন; যদি ফেলে যাই কোন কিছু
যদি ভুলে শেষ নি:শ্বাসের আগে মাথাটা হয় নিচু।

মনে ভয় বাড়িয়ে দিচ্ছে সময়; ক্যালেন্ডার আর ঘড়ি
কত কিছু করার, দেখার এখনো বাকি, কি করি!

যাকে পেতে চাইরে প্রতিক্ষণ; সেও ভয় বাড়িয়ে দিচ্ছে
চলে যাবে সেও; ভাল না বেসে কেমন বদলা নিচ্ছে!

দিনের আলোতে যাকে দেখতে চাই, সে কেনো থাকে আঁধারে
সে যাচ্ছে দূরে, আমার দেহের রক্ত হচ্ছে বুঝি সাদারে।

ভয় পাইয়ে দিয়ে সে কোন্ মায়ার টানে মনটাকে দিচ্ছে নাড়া
ডাকছি যে পিছু, স্মরণে এনে দেই সময়, দিচ্ছেনা সাড়া।

যদি আশারা পূর্ণতা না পায়, ভয়! যদি যাই কুঁকড়ে তবে
দু চোখ ভরা আলো নিয়ে নিভে যাইরে অকষ্মাৎ কী হবে ?

ভয়ের ছোটে যদি ভুলে যাই সব; বিষাদে ছেঁয়ে যায় মন তবে
তার সুরে সুর মিলাই ভুলে ভুলে, ভয় লাগে কী হবে কী হবে!!
(০২ জানুয়ারী ২০১৫)