মা
তোরে দেখতে ইচ্ছে করে
কতদিন দেখিনা তোর মুখ।

জন্ম জন্মান্তরের অদেখা যে তুই
স্বপনেতে দেখা দিবি- এই ভেবে শুই
সবার ঘুম যদি ভাঙ্গেরে মা মায়ের চুমার পরে
আমার ঘুম কেন ভাঙ্গেরে মা কাক-কর্কশ স্বরে।
তোরে দেখতে ইচ্ছে করেরে মা
তোরে দেখতে ইচ্ছে করে।

আমার কি জানতে সাধ হয়নারে মা
পাইল কোন অঙ্গ তোর গড়ন
চোখ নাকি নাক পাইল তোরই ধারা
ভাল, মনটা হয়নাই তোর মতন
তাইত তোরে মনে পড়েরে মা
তোরে দেখতে ইচ্ছে করে।

দূরাকাশের তারা যদি হইতি
দেখতাম তোরে সারারাত জাগিয়া
সবার মায়ের গল্প শুনি আমি
ঐ আকাশের পানে চাইয়া
তোর খবর জানতে শখ হয়রে মা
তোরে দেখতে ইচ্ছে করে।

পরের পাপ কেউ বয়নারে মা
আমিই তোর পাপ বইলাম একেলা
পথের ধারে ফেলে গেলি যদি
এক ফোটা বিষ কেন দিলিনা
আমি তোর পাপের ফসল
আমিই তোর পাপের বোঝা
আমি তোর নাড়ি ছেড়া ধন
আমায় কি তোর দেখতে ইচ্ছে করেনা
তোরে দেখতে ইচ্ছে করেরে মা
একবার তোরে দেখতে ইচ্ছে করে।