খোলা জানালার বাইরে গাড় কুয়াশা
সকালের সূর্য উকি দেয় সবুজ পাতার ফাঁকে
মিষ্টি রোদ পড়ে চুলে ঢাকা ভীত চোখে
তবুও পলকহীন চোখ তাকিয়ে আছে অজানায়।
ঘুম ভাঙ্গা পাখির কলরব, অনুভূতিহীন কান
খোলা জানালা দিয়ে আসে হিমশীতল হাওয়া
শরীরটা নড়ে, ডান থেকে বামে, বাম থেকে ডানে
যেন কষ্টহীন জীবন দুলছে সুখের দোলনায়।

কষ্ট গেছে কাল রাতে, ভীষণ কষ্ট
শরীরের প্রতিটি রক্ত বিন্দুতে বিন্দুতে কষ্ট
নিজের ব্যর্থতার কষ্ট, পরিবারের হতাশা-নিরাশার কষ্ট
অর্থের কষ্ট, চারিদিকে শুধু কষ্ট আর কষ্ট।
এত সব কষ্ট নিয়ে, রশির কাছে আত্মসমর্পণ
মেঝে থেকে দু’হাত উপরে শরীর, শেষ কষ্টের আশায়
তীব্র কষ্ট, কোটর থেকে বেড়িয়ে আসে চোখ
খোলা জানালার দিকে তাকিয়ে শেষ নিঃশ্বাস
তারপর নিথর শরীর, স্তব্ধ সব অনুভূতি।

সকালে শরীরটা দুলছে, ডান থেকে বামে, বাম থেকে ডানে
শরীরের চারপাশে ঘুরছে তার কষ্ট গুলো
ব্যর্থ শরীরের কষ্ট গুলোও আজ ব্যর্থ
শরীরটাকে পারছেনা আর কষ্ট দিতে।
ব্যর্থ শরীর আজ আর ব্যর্থ নয়
তার কষ্টগুলোর প্রতি নিয়েছে প্রতিশোধ।