মায়ের হাতের ভাঁপা পিঠা
পুলি পিঠার দিন
সকাল বেলার শীতের রোদও
লাগতো যে রঙ্গীন।

কত কাল চলে গেলো
বেলাও বেড়েছে বেশ
এখন তো আর ডাকে না
বলে “ওঠ” শীতের পিঠা শেষ।

শীতের দিনের কাঁথা মুড়ি
শরীর গরম ভাব
কোথায় যেনো হারিয়ে গেলো
স্বাভাবিক সেই স্বভাব।

শহুরে জীবনে ঋতুর বেড়ার
নেই কোন ঝামেলা ...
কখন এলো-গেলো শরৎ বা
শীত-বর্ষার খেলা।

ছোট্ট বেলার সে দিন গুলো
খুব মনে পড়ে ...
দেখবে না কখনো এ প্রজন্ম
শীত কাকে বলে।