জীবন চলার পথে মুসাফির,
পিছনে ফিরে তাকায়।
কতো স্মৃতি তার মনের থেকে,
ঝরেপরে যায় বায়।

ছোট বেলায় হতো নামাজ কাজা,
এখনো হয়নি ঠিক!
সকল কাজ হতো সময়মত,
পাওনা আমার ধিক!

যুবক বয়সে শক্তি সাহস,
অভাব ছিলনা কিছু।
শয়তান আমায় পথ দেখাতো,
চলেছি তাহার পিছু।

আজকে সাথী আমার হাতে লাঠি,
পথ চলতে কাপে পাঁ।
মসজিদেতে তাই কেমনে যাবো?
আজ দুর্বল মোর গা।

কথার ঝরে আমার চেয়ে কেবা,
হইতে পারতো সেরা।
মিথ্যা কথায় অনেক জনকেই,
বানিয়ে ছিলাম ভেড়াঁ।

হাজার রকমের মিথ্যা কথায়,
কাটতো আমার দিন।
ছায়া আমার পরলো নুয়ে আর,
কন্ঠ হয়েছে ক্ষীণ।

ওয়াদা দিয়ে পুরা করে এমন,
আজব মানুষ নই!
তাইতো নিজের পাকা ধানে দেখি,
নিজের হালেই মই!

তেজ দীপ্ত জীবনের প্রদীপ,
খরচ নিজের হাতে।
বেলা ডুবে সন্ধ্যাহলে আমার,
ঘিরবে গহিন রাতে।

এবার তওবা করে ফিরে এলাম,
ত্যাগ করলাম পাপ।
পাহাড় সমান গুনাহ মালিক,
তুমি করে দিও মাফ।।