পৃথিবীতে সবচেয়ে আপন কেউ যদি থেকে থাকে তাহলে আছে মা। আর তার পরেই আছে পিতার আসন। আর যদি কারো কাছে সবচেয়ে প্রিয় শব্দটি সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয় তাহলে সবাই প্রথমেই বলবে মা-বাবার কথা। মায়ের পায়ের নিচেই রয়েছে সন্তানের বেহেশত। ইসলামের দৃষ্টিকোণ থেকে বলা হয়েছে পৃথিবীতে মা-বাবার চেয়ে প্রকৃত সম্পদ আর কিছু হয়না। কিন্তু বর্তমান সময়ে আমাদের এই প্রিয় মা-বাবাকেই নিয়েই যতো ঝামেলা। মা-বাবা যেন আমাদের কাছে বোঝা হয়ে গেছে। সংবাদপত্র, পত্রিকা, টেলিভিশনেে প্রত্যেক / প্রায় সময়ে দেখা যায় মা-বাবার করুন পরিনতি। এটা খুবই দুঃখজনক। বিষয়ের সাথে ভাবগত এমনকি নানাদিক থেকে সামঞ্জস্যতা রয়েছে। যা রচনাশৈলীকে আরও বেশি সমাহিত করবে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৪ এপ্রিল ১৯৯৫
গল্প/কবিতা: ২২টি

সমন্বিত স্কোর

৪.১১

বিচারক স্কোরঃ ২.০১ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.১ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - মা (মে ২০১৯)

মা
মা

সংখ্যা

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.১১

মোঃ মাসুদ রানা

comment ১৬  favorite ০  import_contacts ১৫০
একটি ক্ষুদ্র অতি সামান্য শব্দ ।
একটি স্বপ্ন একটু আকাঙ্ক্ষা আর একটি ইচ্ছে পূরনের গল্প ।
একটি আশা একটু ভালবাসার আর একটি ভাল লাগার আষাঢ়ের কল্পকথা ।
একটি মায়া একটু ছায়া আর একটি মমতার অলৌকিক সেতুর বন্ধন ।
একটি সাহস একটু দুরন্তপনা আর একটি ছেলেমানুষির সরলতার বন্ধুত্বপূর্ন ছায়া ।
একটি অভিমান একটু রাগ আর কিছুটা খোশগল্পের অফুরন্ত কল্পনার জগত ।
একটি বিশ্বাস একটু দোষ আর সকল দুষ্টমির অফুরন্ত আলিঙ্গন ।
একটি অপেক্ষা একটু ধৈর্য আর একটি ভাবনার অশ্রু ভেজা চোখের পলকহীন দৃষ্টি ।
একটি কড়া শাসন একটু বকুনি আর একটু চোখের দাঁড়ালো চাহনীর মুখের মিষ্টি হাসির নরম শব্দ ।
একটি গোছালো হাতের কাজ একটু আদুরে ছোঁয়া আর একটি মাথার উপরে তৃপ্তির পরশ ।
একটি ব্যস্ত জীবন একটু পরিকল্পনাহীন গন্তব্যস্থল আর একটি নিজের জীবন সমন্ধে অখেয়াল ।
একটি ভারাক্রান্ত মন একটু অসুস্থতায় কান্না আর শুকিয়ে যাওয়া চোখের জল ।
একটি পরিবার একটু সেবাযত্ন আর সকলের যুগোপযোগী সকল চাহিদার সমাধান ।
একটি সংসার একটু অঙ্গীকার আর পরিবারের সময় অসময়ের খেয়াল ।
একটি ঘুমহীন চোখ একটু অবিশ্রাম রাত আর তাঁর সকল স্বপ্নের ভাবনাহীন পাহাড়া ।
একটি কুহু ডাকা ভোর একটু সময়ের অবসান আর সারাদিনের নানান অজুহাতের সংগ্রামী প্রতিফলন ।
একটি না চাওয়া একটুও না পাওয়া আর জীবনের বাকিটা সময় বিলিয়ে দেওয়ার শপথ ।
নিজেকে না ভেবে সকলের পাশে থাকার এক দাওয়াত পত্র ।


মা।
ক্ষমা করো ।মাফ করে দিও ।
ভুলে যেও ।আমার করা ছোট আঘাত আর চড়া গলায় বলা কিছু কর্কট কথা ।
সময় অসময়ের অসামর্থের আবদার ।
রাগারাগি আর মনোমালিন্যের ছাপ ।
আমার জন্য শোনা বকুনি আর গালমন্দ ।
লুকিয়ে লুকিয়ে ধুকে ধুকে কান্নার মুহূর্ত ।
প্রতিবেশীর করা ঝগড়া ঝাটি ।
শিক্ষকের কড়া কিছু কঠিন শব্দের ভাষা ।
বাবার কিছু রাগের আঘাত ।
ভুলবো না ।এ জীবন যত দিন না যায় ।
তুমি সুখে থেকো ।
ভালো থেকো ।
আল্লাহ্ তোমাকে বেহেস্তে নসিব করুক ।
দোয়া করি তুমি জান্নাতের সর্বোচ্চ স্থানে থাক ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement