'মরীচিকা চোর' কবিতাটিতে বাংলাদেশের সমাজে প্রচলিত নানা কঠোরতার আলোকপাত করা হয়েছে। এখানে বিশ্ব এর অনেক দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ ও সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেছি। সেসব দেশের নীতি আদর্শের কাছে আমাদের সমাজের অনেক অমিল রয়েছে। উন্নত বিশ্ব এর মানুষ নিয়ম ও ভালোবাসার দ্বারা সব জয় করছে। সেখানে আমাদের সমাজ গনতন্ত্র, নিয়ম, শৃঙ্খলার নামে মানুষকে কঠোর ভাবে হয়রানি করছে। সমাজের একজন আর একজনকে দমিয়ে রাখছে নিজের স্বার্থের জন্য। এমতাবস্থায়, কবি তার সব দুঃখ ও কষ্টকে কোন অজানা চোর কে চুরি করতে বলছে। কিন্তু কবি জানে, বাংলাদেশে এমন চোর কোনদিন আসবে না। আর বাংলার মানুষের ও দুঃখ-দুর্দশাও ঘুচবেনা।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৫ অক্টোবর ১৯৮৫
গল্প/কবিতা: ৪টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৫১

বিচারক স্কোরঃ ১.৯৮ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৫৩ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কঠোরতা (মে ২০১৮)

মরীচিকা চোর
কঠোরতা

সংখ্যা

মোট ভোট ২৮ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৫১

রবিউল ইসলাম

comment ১৬  favorite ০  import_contacts ৫৫৪
পৃথিবীর পথ দীর্ঘ ও প্রশস্ততম হয় তরতরে
কত মনুষ্য কত যান ছুটছে অবলীলায় ওর বুক চিরে,
এশিয়া থেকে আফ্রিকা, দূরপ্রাচ্য হতে এন্টার্কটিকা। আকাশের মেঘ ভেঙ্গে
জলের স্বচ্ছতা ও বরফ কেটে; ভূমি, পাহাড় ও পর্বত ডিঙে
দূর্বার এগুচ্ছে মানুষ। মরু হতে মঙ্গলে।
জয়ের নেশায়। বিজয়মাল্য গলে
দেখি কত শত জনকে বাঁজাতে বাদ্য, নিত্য অনবরত
কলম্বাসের আমেরিকা আঁতুড়ঘর থেকে জ্বলে উঠল হটাৎ অগ্নুৎপাতের মত।
যার উত্তপ্ত তাপের কাছে ভিড়তে পারেনি কেউই আজ অবধি
হিরোশিমা ও নাগাসিকার পারমানবিক বোমা জয় করে নিকো জাপানি?
যন্ত্রণাযুক্ত ক্ষুধার থাবা ভেদে চীনারা বৃদ্ধাংগুলি দেখাচ্ছে বিশ্বকে
আফ্রিকায় উপজাতিরা স্বপ্ন বুঁনে ছুটছে দূর্বার লোহার বল্লম ও ধনুকে,
অনেকে জয় ও পাচ্ছে। কেউ পড়ে গেলে আবার শুরু করে ম্যারাথন
ঠিক সেই খানেই আমি বাঙালি বল বা বাংলাদেশীর আলসে যৌবন।
উতলা যৌবনের সূর্য অস্ত যাচ্ছে কঠোর গনতন্ত্রের কাছে
তৈল মর্দনে চতুর দাদা, পাশ্চাত্য ও চীনাদের পিছে পিছে।
এ বঙ্গে আজকাল শিশু ও নারী পথ হারায় নরের কঠোরতায়
নেয় না কেউ বেকার ও বৃদ্ধের আর্তনাতের দায়,
দেখে না কেউ স্বীয় পরিবারের কষাঘাতে সল্প বেতনের চাকুরের হাহাকার
কেউ পড়ে না আদর্শের লীলায় নষ্ট জীবনের সমাচার।
দিন কা দিন সব পথ রুদ্ধ ও সংকীর্ণ হয়ে যাচ্ছে মোর
আয় বন্ধু চুরি কর সব কষ্ট! ওহে মরীচিকা চোর?

advertisement

ট্যাগগুচ্ছ

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement