সাত নড়ি রঙে রংধনু কাঁপে
সিধে রং বিঁধে যেনো ধনুতে,
গুরু মেঘ লঘু মেঘ তড়াসে;
টেনে আনে অনুনয় মোহময়
রংটুকু তাও দেয় গরাসে।

পোড়ো,পোড়াও দ্রাবিড়ে
দার্ঢ্য দাড়ি কমা খাসা তাই;
চটা রং চেটে চেটে সাতাশে,
মিহি নলা গিলে ওই বয়সে
স্বার্থের কল, নড়ে তাই বাতাসে।

একাএকা অজুহাত নড়ে না
রং মেখে ঢং দেখে ফিকে হাসি
খেলা চলে নিরামিশ আমিষে,
পরমায়ু পরমে পরশে-
কতোখানি নামী ছিল;
কতোখানি দামী সে।

বপুদেব শুলে পরে আলিসে
প্রচলিত হয় যদি সবিশেষ,
মনু মুনি ধরে নমঃ নামতা;
জোড়া-তালি দিতে ছেঁড়া জীবনে।

গ্রন্থের গিট-পাঠ সুতোতে জটলা-
গিট্টু খেয়ে খেয়ে 'বেঁচে থাকা' বাঁচিলে,
স্বাধীনতা ঝুলে থাকে আরামে-
ক্ষয়ে পড়া সমাজের পাচিলে।