সভ্যতার উষালগ্নে তোমার উম্মেষ
সৃজনের মাঠে মাঠে অজস্র আবাদ;
ফসলের গোলাঘর তাবত পৃথিবী
ইচ্ছেগুলো প্রস্ফুটিত শুধু বিধাতার ।
কালের সায়রে ভাসে মানবের ভেলা
বিষম প্রলয়ে দৃঢ় মুখোমুখি বসে ;
বৈঠার শাসনে ভাংগে নদীর পাঁজর
শ্বাসত পানোখ তবু ছাড়েনিক হাল।
চেনা থেকে চির চেনা অবোধ তরল,
দৃঢ় থেকে দৃঢ়তর প্রিয়ার অধর;
ভুলে যায় পোড়া,ভেঁজা মৃত্তিকা সরল
হাতে হাত রেখে হয় শপথ অঝর
পরিচয়ে কথা কিছু থাক বা না থাক
সভ্যতায় দাও কিছু নতুন পোষাক।