অন্ধ হয়ে মায়ের কোলে জন্ম নিয়েছি,
মায়ের চোখে এই পৃথিবীর আলো দেখেছি।
মানুষ রূপে জন্ম নিয়ে মানুষ দেখলাম না,
সুন্দর এই পৃথিবী আমার দেখা হলো না।

প্রভুর দেয়া দুই নিয়ামত চক্ষু যে মোর নাই,
অন্ধ,অন্ধ,আমি অন্ধ মানব হাই।

বাবা-মার হাত ধরে হাটতে শিখেছি,
তাদের চোখের আলো দিয়ে পথ চলেছি।
সব পেয়েও যেন আমি কিছুই পেলাম না,
চক্ষু যে যার নেই তো তার সবই অজানা।

সবার মত আমিও মানুষ একটা জিনিষ নাই,
অন্ধ,অন্ধ,আমি অন্ধ মানব হাই।

লোকের মুখে শুনি সুন্দর মক্কা-মদিনা,
অন্ধ লোকের শ্রবণ কথা মনের যন্ত্রণা।
দেখে কোরান পড়লে ছোয়াব হবে বেশি,
দৃষ্টিহীনা পড়লে ছোয়াব হবে কি তেমন বেশি?

অগণিত সৃষ্টি তোমার দেখার ভাগ্যে নাই,
অন্ধ,অন্ধ,আমি অন্ধ মানব হাই।

অন্ধ করার হেকমত কী তুমিই ভালো জানো,
শুকরান!অন্যের চেয়ে রেখেছো অনেক ভালো।
মিছে দুনিয়ার রূপের বাহার চাইনা দেখতে আমি,
কবুল করো হে দয়াময় যেন তোমায় দেখতে পারি।

আসা! প্রিয় নাবীর দিদার যেন মরার আগে পাই,
অন্ধ,অন্ধ,আমি অন্ধ মানব হাই।